ব্যবসা-বানিজ্য ও অর্থনীতি

মাত্র ৭ টাকার বিনিময়ে প্রতিমাসে পাবেন ৫ হাজার টাকা পেনশন, দুর্দান্ত স্কিম নিয়ে হাজির কেন্দ্রীয় সরকার

অবসরের পর পেনশন বয়স্কদের কাছে এক বড় সম্বল। কিন্তু এর জন্য সঠিক কোথায় টাকা বিনিয়োগ করা হবে সেটাই হলো সবথেকে বড় প্রশ্ন। তবে সাধারণ মানুষের ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে কেন্দ্রীয় সরকারের একটি দুরন্ত স্কিম করে। প্রবীণ ব্যক্তিদের জন্য অটল পেনশন যোজনা শুরু করা হয়েছিল ২০১৫ সালে। প্রথমে এই যোজনা অসংগঠিত ক্ষেত্রের শ্রমিকদের কথা মাথায় রেখে শুরু করা হলেও এখন এই প্রকল্প সকলের জন্যই উপলব্ধ। এক্ষেত্রে প্রবীণ গ্রাহকরা মাসিক ১০০০,২০০০,৩০০০,৪০০০ অথবা ৫০০০ টাকা অবধি পেনশন লাভ করতে পারেন।

একটি পরিবারেবা স্বামী-স্ত্রী আলাদা করে অ্যাকাউন্ট খোলে তাহলে মাসিক ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত পেনশন পেতে পারবেন তারা। মূলত অসংগঠিত শ্রমিকদের কথা মাথায় রেখে এই যোজনা চালু করাতে তাই এর প্রিমিয়াম অত্যন্ত কম। ১৮ থেকে ৪০ বছর বয়স অবধি যেকোনো পুরুষ অথবা মহিলা অটল পেনশন যোজনায় নিজের খাতা খুলতে পারেন।

এই যোজনাতে মাত্র ৭ টাকা জমা করলে গ্রাহকরা পেয়ে যাবেন ৫০০০ টাকা প্রতি মাসে। আসুন বিস্তৃতভাবে জেনে নেওয়া যাক এই স্কিমটিকে। ৬০ বছরের পরে প্রতি বছর পাওয়া যাবে ৬০,০০০ টাকা পেনশন অটল পেনশন যোজনার মাধ্যমে ৬০ বছরের পর রিটায়ারমেন্টের পর প্রতি মাসে গ্রাহক ১ হাজার টাকা থেকে শুরু করে ৫ হাজার টাকা পর্যন্ত পেনশন পাওয়া যেতে পারে। অটল পেনশন যোজনায় প্রতি ৬ মাসে ১২৩৯ টাকা বিনিয়োগ করতে হবে। তাহলে ৬০ বছরের পর আজীবন প্রতি মাসে ৫০০০ টাকা করে পেনশন পাওয়া যাবে। অর্থাৎ প্রতি বছর পেনশন পাওয়া যেতে পারে ৬০ হাজার টাকা।

প্রতি দিন গ্রাহক যদি ৭টাকা করে জমা রেখে প্রতি মাসে আপনি পেয়ে যাবেন ৫০০০ টাকা প্রতিমাসে। অর্থাৎ ২১০ টাকা গ্রাহক প্রতিমাসে যদি জমা করেন তবে তাহলে ৫ হাজার টাকা করে পাবেন। অর্থাৎ বার্ষিক ৬০০০০ টাকা পর্যন্ত আপনি পেতে পারেন। ১৮ বছর বয়স থেকেই এই যোজনয়ার স্কিমের আওতায় আসতে পারবেন মানুষেরা। শ্রমিকদের নিশ্চিন্ত ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করেই এই যোজনাটি এনেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

এই টাকা যদি গ্রাহকরা প্রতি ৩ মাস অন্তর দেওয়া হয় তাহলে ৬২৬ টাকা জমা দিতে হবে এবং প্রতি ৬ মাস অন্তর দেওয়া হলে ১২৩৯ টাকা জমা দিতে হবে। অটল পেনশন যোজনার মাধ্যমে গ্রাহকরা যদি ৬০ বছরের পর আজীবন প্রতি মাসে ১০০০ টাকা করে পেনশন পেতে চায় তাহলে তাকে ১৮ বছর বয়স থেকেই প্রতি মাসে ৪২ টাকা করে জমা দিতে হবে

কম বয়সে গ্রাহকরা যদি বিনিয়োগ করা শুরু করেন তাহলে পাওয়া যাবে বেশি লাভ অটল পেনশন যোজনার মাধ্যমে। কেউ যদি ৬০ বছরের পর আজীবন প্রতি মাসে ৫০০০ টাকা করে পেনশন পেতে চায় এবং সে যদি ৩৫ বছর বয়স থেকে শুরু করে তাহলে তাকে বাকি ২৫ বছর প্রতি ৬ মাসে ৫,৩২৩ টাকা করে জমা দিতে পারবেন। এর ফলে সেই ব্যাক্তির মোট বিনিয়োগের পরিমাণ হবে ২.৬৬ লাখ টাকা এবং সে প্রতি মাসে ৫০০০ টাকা করে পেনশন পেতে পারবে।

অটল পেনশনএই যোজনায় ৩ ধরনের প্ল্যান রয়েছে। -মাসিক, ত্রৈমাসিক এবং অর্ধ-বার্ষিক তিন ধরণের হতে পার। এর মধ্যে যে কোনও একটি বেছে নিতে পারবে গ্রাহকরা। এই যোজনায় ইনকাম ট্যাক্সের ধারা ৮০সিসিডি অনুযায়ী ট্যাক্স ছাড় পাওয়া যায়।

Related Articles

Back to top button