জীবনযাপনস্বাস্থ্য ও ফিটনেস

To Lose Weight: ওজন কমিয়ে ফিট থাকতে চান! এই কয়েকটি খাদ্যদ্রব্য খাওয়া বন্ধ করুন এখনই

×
Advertisement

বর্তমানের কর্মব্যস্ত জীবনে ফিট ও সুস্থ থাকাটা ভীষণভাবে জরুরী। আর সেক্ষেত্রে‌ নিয়মিত ডায়েট মেনে খাওয়া-দাওয়া করার পাশাপাশি করতে হবে শরীরচর্চাও। আর আজকের যুগে দাড়িয়ে নিয়মিত শরীরচর্চা করে থাকেন অনেকেই। আজকের প্রজন্ম সবসময় সকলের কাছে নিজেকে প্রেজেন্টেবল রাখতে পছন্দ করে। সেক্ষেত্রে শরীরের অতিরিক্ত ওজন কমানো একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। আর এই পরিস্থিতিতে সবথেকে প্রয়োজনীয় নিজেদের খাওয়া-দাওয়ার দিকে নজর দেওয়া। শরীরচর্চা করার পাশাপাশি বেশ কয়েকটি খাদ্যদ্রব্য একেবারেই খাওয়া বন্ধ করে দিতে হবে। খাওয়া শুরু করতে হবে শরীরের প্রয়োজনীয় পুষ্টিকর খাদ্য।

Advertisements
Advertisement

তবে এই নিবন্ধের সূত্র ধরে সেইসমস্ত খাদ্যদ্রব্যের কথা জানানো হবে যেগুলি এখনই খাওয়া বন্ধ না করলে শরীরচর্চা করেও ওজন কমাতে সক্ষম হবেন না কেউ। রইল তালিকা।

Advertisements

১) ফ্রেঞ্চ ফ্রাইস: এটি ছোট থেকে বড় সকলের কাছেই অত্যন্ত লোভনীয় একটি খাদ্যবস্তু। তবে এনসিবিআইয়ের এক রিপোর্ট অনুযায়ী, যারা ওজন কমাতে মনোযোগী হয়েছেন তাদের এই ধরনের খাবার একেবারেই খাওয়া উচিৎ নয়। কারণ এই ধরনের খাদ্যদ্রব্যে ফাইবার বর্তমান থাকেনা। এগুলি তেলে তৈরি হয় বলে এতে ক্যালরির পরিমাণ বেশি থাকে। বেশি থাকে নুনের পরিমানও।

Advertisements
Advertisement

২) কোল্ডড্রিংস ও এনার্জি ড্রিংক: ওজন কমাতে এই ধরনের পানীয় সবার আগে খাওয়া বন্ধ করা অত্যন্ত জরুরি। কারণ এই ধরনের পানীয়তে প্রয়োজনের থেকে অতিরিক্ত মিষ্টি থাকে অর্থাৎ শর্করা বর্তমান থাকে, যা শরীরের পক্ষে একেবারেই উপযুক্ত নয়। শর্করা জাতীয় খাবার ওজন বৃদ্ধি করে, তা অজানা নয় কারোরই। এক্ষেত্রে ক্যালরি ও ওজন কমাতে এই ধরনের পানীয় এখনই খাওয়া বন্ধ না করলে শরীরচর্চা করেও কোন লাভ হবে না।

৩) অ্যালকোহল: এনসিবিআইয়ের এক রিপোর্ট অনুযায়ী, অ্যালকোহলে প্রচুর পরিমাণে ক্যালরি বর্তমান থাকে। পাশাপাশি এটি খিদে বাড়ায় দ্বিগুণ। ফলে খুব স্বাভাবিকভাবেই ওজন বাড়তে থাকে। এক্ষেত্রে যদি ওজন কমাতে চান তাহলে, এখনই এই ধরনের পানীয় থেকে নিজেকে শতহস্ত দূরে রাখতে হবে।

৪) মাংস: হ্যাম, সসেজ, বেকন, হটডগের মত খাবার ওজন কমাতে গেলে একেবারেই বন্ধ করে দিতে হবে। কারণ এই ধরনের খাদ্যে প্রচুর পরিমাণে স্যাচুরেটেড ফ্যাট বর্তমান থাকে। এটি ধমনীকে আটকে দেয় এবং শরীরের অভ্যন্তরীণ প্রদাহ বাড়িয়ে তোলে। উল্লেখ্য এই ধরনের খাদ্যে নাইট্রেট বর্তমান থাকে যা শরীরের ডিএনএকে নষ্ট করে দিতে পারে। আর সেই কারণেই শরীরের স্বাভাবিক ভারসাম্য বজায় রাখতে ও ওজন ঠিক রাখতে এই ধরনের খাবার এখনই খাওয়া বন্ধ করতে হবে।

Related Articles

Back to top button