Today Trending Newsনিউজরাজ্য

বাংলায় লোকাল ট্রেন চালু করা হোক, রেলমন্ত্রীকে চিঠি বিজেপি সাংসদের

বাংলার মানুষের বৃহত্তর স্বার্থের কথা চিন্তা করে পূর্ব রেলওয়ে, দক্ষিণ পূর্ব রেলওয়ে এবং মেট্রো পরিষেবা আবার চালু করার আর্জি জানিয়েছেন সাংসদ স্বপন দাশগুপ্ত



পশ্চিমবঙ্গের সাধারণ মানুষের কথা ভেবে এবারে পশ্চিমবঙ্গের লোকাল ট্রেন চালু করার আর্জি নিয়ে রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল কে চিঠি দিলেন বিজেপি রাজ্যসভার সাংসদ স্বপন দাশগুপ্ত। কিছুদিন আগেও, বিজেপি অন্য আরেক সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায় বাংলায় লোকাল ট্রেন চালু করা নিয়ে সরব হয়েছিলেন। আর এবারে স্বপন দাশগুপ্ত সরাসরি এই বিষয়ে রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল এর হস্তক্ষেপ দাবি করলেন।

চিঠিতে কেন্দ্রীয় রেলমন্ত্রী কে বিজেপি সাংসদ লিখলেন, গত এপ্রিল মাস থেকে করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার কারণে লকডাউন ঘোষণা করতে হয়েছিল। তারপরে লোকাল ট্রেন এবং মেট্রো পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়া হয়। কিন্তু বর্তমানে করোনা পরিস্থিতি অনেকটা সামলে গেছে। গত দুই সপ্তাহ ধরে লকডাউন পরিস্থিতি শিথিল করা হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে রেস্টুরেন্ট থেকে শুরু করে জিম এবং সেলুন পর্যন্ত খোলা হয়েছে পশ্চিমবঙ্গে। এমনকি বাস পরিষেবা চালু হয়েছে। কিন্তু তার মধ্যেও অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক ভাবে লোকাল ট্রেন এবং মেট্রো পরিষেবা এখনো পর্যন্ত বন্ধ রেখেছে রাজ্য সরকার।

কিন্তু, যারা নিজেদের জীবিকা নির্বাহের জন্য ট্রেন ব্যবহার করে তাদের ক্ষেত্রে এই ব্যাপারটি অত্যন্ত অসুবিধাজনক হয়ে পড়ছে। লোকাল ট্রেন বন্ধ রাখার কারণে বাসে প্রচন্ড ভিড় হচ্ছে যার ফলে বাস এর মাধ্যমে সংক্রমণ বাড়তে পারে বলে মনে করছেন বিজেপি সাংসদ। এছাড়াও বাংলার মানুষের বৃহত্তর স্বার্থের কথা চিন্তা করে পূর্ব রেলওয়ে দক্ষিণ পূর্ব রেলওয়ে এবং মেট্রো পরিষেবা আবার স্বাভাবিক যাতে করা হয় তার জন্য আর্জি জানিয়েছেন পীযূষ গোয়েল। সমস্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনে এই পরিষেবা যাতে সাধারণ মানুষের জন্য খুলে দেওয়া হয়, সেই দাবি রেখেছেন বিজেপি সাংসদ।

এর আগেও শিয়ালদহ ডিভিশনের ডিআরএম রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে লোকাল ট্রেন চালানোর জন্য চিঠি দিয়ে আর্জি জানিয়ে ছিলেন। কিন্তু রাজ্য সরকার এখন লোকাল ট্রেন চালানোর পক্ষপাতী নয়। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বর্তমানে রাজ্যে করোনা সংক্রমনের হার অনেকটা নিম্নমুখী। রাজ্য সরকারি এবং বেসরকারি অফিস খোলা হচ্ছে, বাস পরিষেবা চালু হয়েছে এবং বেশ কিছু ক্ষেত্রে বিধি-নিষেধ শিথিল করা হয়েছে। কিন্তু এই পরিস্থিতিতে এখনো রাজ্য সরকারের তরফ থেকে লোকাল ট্রেন চালু করার ব্যাপারে কোনো সবুজ সঙ্কেত দেওয়া হয়নি। এই কারণে যাতে সাধারণ মানুষের সমস্যা কম হয়, সেই নিয়েই কেন্দ্রীয় রেলমন্ত্রী কে চিঠি দিয়েছেন স্বপন দাশগুপ্ত।

Related Articles

Back to top button