নিউজপলিটিক্সরাজ্য

কাঁথি পুরসভার প্রশাসক পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হলো শুভেন্দু অধিকারীর ভাই সৌমেন্দুকে, জল্পনা রাজনৈতিক মহলে

সৌমেন্দু অধিকারী জায়গাতে এলেন এবারে অখিল গিরির (Akhil Giri) ঘনিষ্ঠ সিদ্ধার্থ মাইতি (Siddharth Maity)

Advertisement

শুভেন্দু অধিকারীর দলত্যাগের পর থেকেই ক্রমাগত দলের সঙ্গে দূরত্ব বাড়ছিল শুভেন্দু অধিকারীর পরিবারের। এবারে কাঁথি পুরসভার প্রশাসক মন্ডলীর চেয়ারম্যান পদ থেকে সরানো হল শুভেন্দু অধিকারীর (Suvendu Adhikary) ভাই সৌমেন্দু অধিকারীকে (Soumendu Adhikary)। তা জায়গাতে এবারে বসানো হলো অখিল গিরির ঘনিষ্ঠ সিদ্ধার্থ মাইতিকে। পুর এবং নগর উন্নয়ন দপ্তরের একটি নির্দেশিকাতে আমরা এই ব্যাপারটি পরিষ্কারভাবে জানতে পেরেছি। এই নির্দেশিকাতে দেখা গিয়েছে কাঁথির বর্তমান প্রশাসনিক বোর্ড সম্পূর্ণরূপে ভেঙে দেওয়া হয়েছে। তার জেরেই বর্তমান প্রশাসক শুভেন্দু অধিকারীর ভাই সৌমেন্দু অধিকারিকে অপসারিত করা হয়েছে। চেয়ারম্যানসহ বাকি সদস্যদের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

তবে, সৌমেন্দু অধিকারী দাবি করেছেন, তার হাতে এখনো কোন নির্দেশিকা আসেনি। তাই নির্দেশিকা না দেখে কিছু বলা সম্ভব কিন্তু না। তবে, রাজনৈতিক মহলের দাবি, শুভেন্দু অধিকারী তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করার পর থেকেই তার পরিবারের সঙ্গে দূরত্ব বাড়াতে শুরু করে তৃণমূল কংগ্রেস।

সূত্রের খবর, শুভেন্দুর দলত্যাগের পর থেকে তার ভাইয়ের সমস্ত গতি প্রকৃতি নিয়ে জল্পনা ছড়িয়েছিল। শুভেন্দু অধিকারী বিজেপিতে যোগ দিলে তার পরিবারের কেউ দল ছাড়েননি। এই কথা জানিয়ে ডায়মন্ডহারবারের সভা থেকে মন্তব্য করেছিলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় ( Abhishek Banerjee )।

তার পাল্টা জবাব দিয়ে টিটাগড়ের সভা থেকে শুভেন্দু অধিকারী বললেন, ” এখনো তো বাসন্তী পুজোটা আসেনি। রামনবমী আসতে দিন। আমার বাড়ির লোকেরা পদ্ম ফোটাবে। শুধু এখানে নয় আপনার হরিশ চ্যাটার্জি স্ট্রিটে গিয়ে পদ্ম ফুটিয়ে আসবে।” এই মন্তব্যের পরেই, অপসারিত করা হলো সৌমেন্দু অধিকারীকে। অখিল গিরির অভিযোগ ছিল তিনি দলের মধ্যে থেকে শুভেন্দু অধিকারীর সাহায্য করেছিলেন। এই কারণেই তাকে সমস্ত পদ থেকে অপসারিত করা হলো।

Tags

Related Articles

Back to top button