নিউজপলিটিক্সরাজ্য

ভাইকে অপসারিত কেন করা হলো, এই অভিযোগে কাঁথি পুরসভা ত্যাগ করলেন দিব্যেন্দু অধিকারি

তার দাবি, বর্তমানে ওই পদে যিনি রয়েছেন তিনি কাঁথি পৌর এলাকার ভোটার নন।

Advertisement

কাঁথি পৌরসভা প্রশাসক পদ থেকে অধিকারী বাড়ির ছেলেকে সরানো নিয়ে পরিবারের মধ্যে ক্ষোভ দানা বেঁধেছে। এই নিয়ে মঙ্গলবার খবর প্রকাশে আসামাত্রই ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন দিব্যেন্দু অধিকারি (Dibyendu Adhikary)। তিনি এদিন স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন, কাঁথি পৌরসভাতে তার অফিসে তিনি আর বুধবার থেকে বসতে যাবেন না। জানিয়ে রাখি দিব্যেন্দু অধিকারি নিজে একজন তৃণমূল সাংসদ।

দিব্যেন্দু সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, কাঁথি পৌরসভার প্রশাসনিক পদ থেকে সৌমেন্দু অধিকারীকে অপসারণ করা হয়েছে। দীর্ঘ ৫০ বছর ধরে কাঁথি পৌরসভা পরিচালনা করে চলেছে অধিকারী পরিবার। ভাইয়ের অপসারণ হওয়ার কারণে এবার থেকে আর আমি আমার দপ্তরে বসবো না।”

তারা আরও দাবি, সৌমেন্দু অধিকারী কে সরিয়ে যাকে সেই জায়গাতে বসানো হয়েছে, তিনি আসলে কাঁথি পৌর এলাকার ভোটার নয়। তবুও দলনেত্রীর প্রতি তার আস্থা রয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন। পাশাপাশি আরও জানিয়েছেন, তার বাবা শিশির অধিকারী এখনো পর্যন্ত দলের জেলা সভাপতি রয়েছেন।

তবে, প্রসঙ্গত, সৌমেন্দু অধিকারীকে সরিয়ে সেই জায়গাতে বসানো হয়েছে সিদ্ধার্থ মাইতিকে। সৌমেন্দূর বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি শুভেন্দু অধিকারীর সভা তে লুকিয়ে লোক পাঠাতেন। তবে এখনো পর্যন্ত আমরা শিশির অধিকারীর এবং শুভেন্দু অধিকারীর কোন মন্তব্য দেখতে পাইনি।

Tags

Related Articles

Back to top button