টলিউডবাংলা সিরিয়ালবিনোদন

Swastika Dutta: পর্দার রাধিকার মায়ের জটিল অস্ত্রোপচার, কঠিন সময়ে স্বস্তিকার পাশে দাঁড়ালেন শোভন

অক্টোবর মাস অভিনেত্রী স্বস্তিকার ভালো হলেও নভেম্বর মাসটা সেভাবে ভালো যাচ্ছেনা।গত বুধবার হিসটেরেকটমি অস্ত্রোপচার হল ‘কী করে বলব তোমায়’ ধারাবাহিক খ্যাত অভিনেত্রী স্বস্তিকা দত্তের মা সুনীতা দত্তের। আর অভিনেত্রীর এই কঠিন সময়ে পাশে পেয়েছেন তাঁর প্রেমিক তথা জনপ্রিয় সুরকার-শিল্পী শোভন গঙ্গোপাধ্যায়কে।

জানা গিয়েছে বেশ কিছুদিন ধরেই সুনীতা দেবী তলপেটের সমস্যায় ভুগছিলেন। এই ব্যথাতে তিনি যারপরনাই কষ্ট পাচ্ছিলেন। এরপর একাধিক শারীরিক পরীক্ষার রিপোর্ট থেকে জানা যায় তাঁর জরায়ুতে সমস্যা রয়েছে । সূত্রের খবর, চিকিৎসকেরা নাকি আশ্বস্ত করেছেন অভিনেত্রীর পরিবারকে তিনি তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে যাবেন। চিকিৎসকের দাবি, বর্তমানে বহু মহিলাই এই সমস্যায় ভোগেন। অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে এই সমস্যার সমাধান সম্ভব। আর পর্দার ‘রাধিকা’-র এই কঠিন সময়ে পাশে রয়েছে তাঁর প্রেমিক তথা জনপ্রিয় সুরকার-শিল্পী শোভন গঙ্গোপাধ্যায়।

বাইপাসের ধরে এক নামি বেসরকারি হাসপাতালে এই রোগের অস্ত্রোপচার হয়েছে অভিনেত্রীর মায়ের। কেমন আছেন এখন তিনি? জানা গিয়েছে সুনীতা দেবীর শারীরিক অবস্থা এখন অনেকটাই স্থিতিশীল। মায়ের শারীরিক অবস্থা প্রসঙ্গে এক সংবাদমাধ্যমে অভিনেত্রী জানিয়েছেন, তিনি তাঁর মায়ের উপর তপ্রচন্ড নির্ভরশীল। এই মুহূর্তে ঈশ্বরের কাছে তাঁর একটাই প্রার্থনা যেন দ্রুত সুস্থ হয়ে ওঠেন তাঁর মা। এই সময়ে নিজের মায়ের যত্নের যেন এতটুকুও খামতি না থাকে তাই তার জন্য একাধিক বিজ্ঞাপনের শ্যুটিং এর তারিখওপিছিয়ে দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন তিনি। তিনি আরো বলেন, চিকিৎসকরা বলেছেন এই সময় নিয়ম মেনে প্রোটিন জাতীয় খাবার যদি নিয়মিত খাওয়ানো হয়, তাহলেই নাকি দ্রুত তাঁর মা সুস্থ হয়ে উঠবে।

স্বস্তিকার এই খারাপ সময়ে মঙ্গলবারই বিদেশ থেকে তড়িঘড়ি লন্ডন থেকে ফিরেছেন শোভন গঙ্গোপাধ্যায়। জানা গেছে, সুপারস্টার সোনু নিগমের সঙ্গে সেখানে একটি অনুষ্ঠানে কয়েকদিন পারফর্ম করতে ব্যস্ত ছিলেন তিনি। আরও জানা গেল, শোভন এই মুহূর্তে জনপ্রিয় এই বলিউড শিল্পীর দলের সঙ্গে বিশেষভাবেই যুক্ত রয়েছেন। আর সেসব কাজ শেষ হতেই তড়িঘড়ি কলকাতায় ফিরেছেন৷ শহরে ফিরতে সোজা গিয়ে হাজির হয়েছিলেন হাসপাতালে। বুধবার, সুনীতা দেবীর অস্ত্রোপচারের সময়ে হাসপাতালে স্বস্তিকার পাশে উপস্থিত ছিলেন তিনি।

Related Articles

Back to top button