বলিউডবিনোদন

Mithun Chakraborty: স্ত্রীর চিকিৎসার জন্য অর্থ সাহায্য চাইলেন ‘ডিস্কো ডান্সার’-এর পরিচালক, পাশে দাঁড়ালেন মিঠুন চক্রবর্তী সহ অন্যানরা

অর্থ সংকটে বলিউডের জনপ্রিয় ‘ডিস্কো ডান্সার’ ছবির পরিচালক। হ্যাঁ পরিচালক বি সুভাষ এখন অর্থাভাবে ভুগছেন। এই মুহূর্তে তাঁর স্ত্রী তিলোত্তমার চিকিৎসা চলছে। বিপুল খরচ তাঁর আয়ত্তের বাইরে। তাই স্ত্রীয়ের চিকিৎসার জন্য ইন্ডাস্ট্রির তারকাদের থেকে আর্থিক সাহায্য চেয়েছেন পরিচালক মশাইস।

বেশ কয়েকবছর ধরে ফুসফুস এবং কিডনির অসুখে ভুগছেন পরিচালক সুভাষের স্ত্রী। গত বছর থেকেই তিলোত্তমা দেবীর শারীরিক অবস্থার আরও অবনতি হতে থাকে। এমনকি এবছর সেপ্টেম্বর মাসেও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল তিলোত্তমা দেবীকে। তাঁর চিকিৎসার জন্য প্রয়োজন এই মুহূর্তে প্রায় ৩০ লক্ষ টাকা। এত সংখ্যক বিপুল পরিমাণ টাকা খরচ বহন করার মতো আর্থিক সামর্থ্য নেই পরিচালকের। তাই উপায় না থাকায় একসময় যাদের সাফল্যের চূড়ায় নিয়ে গিয়েছেন সেই সব তারকাদের দ্বারস্থ হয়েছেন তিনি। পাঁচ বছর আগে সুভাষের এই বিপদের পাশে এসে দাঁড়িয়েছিলেন সলমন। সে সময়ে তিলোত্তমার চিকিৎসার খরচের ভার নিয়েছিলেন তিনি নিজে

একসংবাদসংস্থাকে পরিচালক মশাই বলেন, “আমরা এই মোটা অঙ্কের বিল শোধ করতে পারছিলাম না। আমার মেয়ে শ্বেতা জুহি চাওলা, ডিম্পল কপাডিয়া, অনিল কপূর, ভূষণ কুমারের মতো তারকাদের থেকে সাহায্য চেয়েছে। তাঁরা প্রত্যেকেই এগিয়ে এসেছেন।” পাশে দাঁড়িয়েছেন ‘ডিস্কো ডান্সার’-এর নায়ক স্বয়ং মিঠুন চক্রবর্তী। সুভাষ সাহায্য পেয়েছেন ইম্পা (ইন্ডিয়ান মোশন পিকচার্স প্রোডিউসর্স অ্যাসোসিয়েশন)-র থেকেও।

সকলের সাহায্য পেয়ে ধীরে ধীরে সুস্থ হচ্ছেন তিলোত্তমা। এই চরম বিপদে নিজের সহকর্মীদের পাশে পেয়ে খুশি পরিচালকও। আশির দশকে ‘ডান্স ডান্স’, ‘কসম পয়দা করনেওয়ালো কি’, ‘প্যায়ার কে নাম কুরবান’-এর মতো একাধিক হিট ছবি তৈরি করেছেন বি সুভাষ। তবে এই পরিচালক কিছু সমস্যার কারণে বিগত কয়েক বছর ধরে বিনোদন জগত থেকে খানিক দূরে সরে আছেন।

Related Articles

Back to top button