দেশনিউজ

লাদাখের পরিস্থিতি কেমন? মুখ খুললেন বায়ুসেনা প্রধান

মঙ্গলবার লাদাখের পরস্থিতি নিয়ে এক অনুষ্ঠানে মন্তব্য করেন বায়ুসেনা প্রধান আরকেএস ভদৌরিয়ার। ইতিমধ্যেই পরিস্থিতি সামাল দিতে সেনার পাশাপাশি টি-৯০, টি-৭২ এর মতো ট্য়াঙ্ক বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে লাদাখে। এমনকি দূরপাল্লার নির্ভয় ক্ষেপণাস্ত্রও মোতায়েন করছে ভারত।

প্রতি দিনই এক একটা বিষয় নিয়ে লাদাখ আর চিনের মধ্যে অশান্তি লেগেই থাকে সেই নিয়ে নতুন করে কারো কিছুই বলার নেই, কিন্তু এদিন এই বিষয় নিয়ে মুখ খোলেন বায়ুসেনা প্রধান। তিনি বলেন, “লাদাখ সীমান্তে পরিস্থিতি এখন নো ওয়ার, নো পিস। এক অদ্ভূত অস্বস্তিকর পরিস্থিতি বিরাজ করছে দেশের উত্তর সীমান্তে। লাদাখে চিনকে কোনও ভাবেই বিশ্বাস করা যাচ্ছে না।

পূর্ব লাদাখে উত্তেজনা কমানো তো দূরের কথা এলএসি বরাবর সেনা ও সামরিক সজ্জা বাড়িয়ে ভারতকে চাপে রাখার চেষ্টা করছে চিন”।  নিজেদের অংশ বুঝে নিতে শত্রুপক্ষকে কোন অংশেই ছাড়ছে না ভারত। শীতের প্রস্তুতি সারতে খাবার ও প্রয়োজনীয় সামগ্রী মজুত করতে শুরু করেছে সেনা। রবিবার লেহ থেকে ২০০ কিমি দূরে চুমার-ডেমচোক এলাকায় বিধ্বংসী ট্যাঙ্কার মোতায়েন করে ভারতীয় সেনা।

পরিস্থিতি উত্তপ্ত হলে মোকাবিলার জন্য ট্যাঙ্ক মোতায়েন করা হয়েছে। কিছুদিন আগে প্যাংগং তাসো লেকের দক্ষিণ দিকেও চিনা সেনার এই সক্রিয়তা রুখতে বাধা দেয় ভারতীয় বাহিনী৷ এরপরই প্যাংগং হ্রদের কাছে অনুপ্রবেশের চেষ্টা করেছিল চিনা সেনা সেই নিয়ে ভারত আর চিনের সম্পর্ক নতুন করে আরও একধাপ খারাপের দিকে এগোয়। সব মিলিয়ে যত দিন যাচ্ছে এখন দুই তরফের বিবাদ ততোই বাড়ছে।

এছাড়াও প্রতিবার নিজের দেশকে সুরক্ষিত রাখতে একাধিক পদক্ষেপ নেওয়ার পাশাপাশি নতুন অস্ত্রেরও ব্যবহার করেছে ভারতের সেনাবাহিনী। এমনকি এতো কিছুর পরেও প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় উত্তেজনা বজায় রাখতে চাইছে চিনের পিপলস লিবারেশন আর্মি। কিন্তু এতো উত্তেজনার মাঝে এবার শীতেও পূর্ব লাদাখে পাহারায় থাকবেন ভারতীয় সেনার জওয়ানরা।

 

Tags

Related Articles

Back to top button