দেশনিউজ

সম্পত্তি বিবাদ কমাতে নয়া উদ্যোগ! প্রপার্টি কার্ড চালু করলেন প্রধানমন্ত্রী

Advertisement

দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার পাশাপাশি অনেক প্রকল্পই এনেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। একাধিক যোজনা এবং প্রকল্পের মাঝেই এবার আর এবার প্রপার্টি কার্ড চালু করলেন মোদিজি। আধারের মতো এই কার্ড দিয়ে গ্রামের কোনও মানুষ সম্পত্তি ও জমির মালিকানা থেকে বঞ্চিত হবেন না।

উত্তরপ্রদেশে ৩৪৬, হরিয়ানার ২২১, মহারাষ্ট্রের ১০০, মধ্যপ্রদেশের ৪৪, উত্তরাখণ্ডের ৫০ এবং কর্নাটকের দুটি গ্রামের মানুষ এই কার্ড পাবেন, বলা যেতে পারে সব মিলিয়ে ছটি রাজ্যের ৭৬৩টি গ্রামের মানুষ আপাতত এই কার্ড পাবেন। ক্ষমতায় আসার পর গুজরাটের প্রান্তিক অঞ্চলগুলিতেও বিদ্যুৎ পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করেন নরেন্দ্র মোদি। বিনিয়োগের পাশাপাশি একের পর এক বিকাশ হতে শুরু করে কৃষি ও শিক্ষা ব্যবস্থায়।

এমনকি যাতায়াত ব্যবস্থা থেকে মেক ইন ইন্ডিয়া ভারতকে আধুনিক করায় মোদির অবদান অনেকখানি। অন্য দিকে আবার মেয়েদের শিক্ষাব্যবস্থায় আরও বেশি করে নিয়ে আসার জন্য শুরু হয় কন্যা কল্যাণী প্রকল্প। সব মিলিয়ে ভারতের অনেক প্রত্যন্ত গ্রামেই দেখা গিয়েছে উন্নয়ন। এছাড়াও শিক্ষা ব্যবস্থায় নতুন নতুন নিয়ম আনা হয়েছে। আর চাকরি ব্যবসার দিকেও দেখা দিয়েছে সার্বিক পরিবর্তন।

আজ ভার্চুয়াল ভাষণের মাধ্যমে এই কার্ড চালু করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। খুব তাড়াতাড়িই ৭৬৩ গ্রামের অন্তত এক লাখ মানুষের মোবাইলে এসএমএস লিংক পৌঁছে যাবে। লিঙ্ক থেকে ক্লিক করে তাঁরা প্রপার্টি কার্ড ডাউনলোড করে নিতে পারবেন। দেশের প্রায় সাড়ে ছয় লক্ষ গ্রামের মানুষের কাছে ২০২৪ সালের মধ্যে প্রপার্টি কার্ড পৌঁছে দেওয়া হবে।

 

Tags

Related Articles

Back to top button