Today Trending Newsনিউজপলিটিক্সরাজ্য

‘রাজনীতি বিজনেস নয়, সবার পাখনা কাটবো’, পূর্ব বর্ধমানে দাঁড়িয়ে হুংকার মিঠুন চক্রবর্তীর

এক গ্রাম কম রেশন দিলে ফোন করে দেবেন, এমএলএ ফাটাকেষ্ট চলে আসবে

×
Advertisement

একুশে বিধানসভা নির্বাচনের দামামা বেজে গেছে বাংলায়। ইতিমধ্যেই চতুর্থ দফা নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। আর বাকি ৪ দফা নির্বাচন। এই বাকি চার দফা নির্বাচনের জন্য রাজ্যের সমস্ত রাজনৈতিক দল তাদের পূর্ণশক্তি দিয়ে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে প্রচারে ঝড় তুলছে। এবার পূর্ব বর্ধমানের রায়নায় আজ অর্থাৎ রবিবার প্রচার করতে গিয়েছিলেন বিজেপির তারকা ভোটপ্রচারক মিঠুন চক্রবর্তী। তিনি প্রচার করতে গিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে একাধিক ইস্যুতে গলায় সুর তুলেছেন এবং একুশে নির্বাচনে বাংলার মানুষকে পদ্মফুল চিহ্নে ভোট দিয়ে বিজেপিকে ক্ষমতায় আনার অনুরোধ জানিয়েছেন।

Advertisement

পূর্ব বর্ধমানের রায়নায় জনসভা থেকে মিঠুন চক্রবর্তী প্রথমেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দুয়ারে রেশন প্রকল্পের তীব্র সমালোচনা করেছেন। তিনি বলেছেন, “ধরে নেওয়া যাক প্রত্যেকটি মানুষ মাসের ১ তারিখে রেশন তুলে নিয়ে আসে। গোটা বাংলায় ৬ কোটি মানুষ রেশন নেয়। তাহলে কি মমতা দুয়ারে রেশন পৌঁছানোর জন্য ৬ কোটি মানুষকে কাজে দেবে? আর যতদিন না রেশন পাবে তাহলে মানুষের ঘরে কি উনুন জ্বলবে না? আসলে সবই বিজনেস প্ল্যান। ওরা রাজনীতি করতে আসেনি, এসেছে বিজনেস করতে। রাজনীতি কোন বিজনেস নয়, বরং রাজনীতি হলো সেবা। মাসে ১ কোটি টাকা কামাই হবে, তাই এটা চালু করছে ওরা।”

এছাড়াও তিনি সাধারণ মানুষের উদ্দেশ্যে বলেছেন, “রেশন নেওয়া আপনার অধিকার। আপনাকে সরকার ভিক্ষা দেয় না। দুয়ারে দাঁড়িয়ে ভিক্ষার মতন রেশন নেবেন না। দোকানে গিয়ে দাঁড়িয়ে নিজের অধিকারের রেশন তুলে আনবেন। এক গ্রামও যদি কম হয় তাহলে ফোন করে দেবেন, এমএলএ ফাটাকেষ্ট এসে হাজির হবে। তারপর সব কটার পাখনা কাটবো।”

Advertisement

Related Articles

Back to top button