বলিউডবিনোদন

রকমারি খাবারের মেনু, ‘হবু মা’ শ্রেয়াকে অনলাইনেই সাধ খাওয়ালেন বান্ধবীরা

×
Advertisement

প্রতিটি মেয়ের জীবনে মা হওয়া এক বিশেষ মুহূর্ত। প্রত্যেক দিন মায়ের সঙ্গে ঝগড়া করা মেয়েটিও এইসময় চায় মায়ের সান্নিধ্য। মেয়েরা তাদের টিনএজে পৌঁছালে প্রায়ই তাদের মায়েরা বলেন “যেদিন মা হবি, সেদিন বুঝতে পারবি”। শ্রেয়া (Shreya Ghoshal)-ও চেয়েছেন তাঁর মায়ের সান্নিধ্য। কারণ কিছুদিনের মধ্যেই তিনিও হতে চলেছেন মা। বিয়ের ছয় বছর পরে শ্রেয়া ও শিলাদিত‍্য (Shiladitya) মা-বাবা হতে চলেছেন। চলতি বছরের 5 ই ফেব্রুয়ারি ছিল শ্রেয়া ও শিলাদিত‍্যর বিবাহবার্ষিকী। মার্চের শুরুতে শ্রেয়া নিজেই সোশ্যাল মিডিয়ায় বেবি বাম্পের ছবি পোস্ট করে তাঁর অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবর শেয়ার করেছিলেন। তিনি হবু বেবির নাম দিয়েছেন ‘শ্রেয়াদিত‍্য’। শ্রেয়া এই খবর শেয়ার করে সকলের আশীর্বাদ ও ভালোবাসা কামনা করেছিলেন। নেটিজেনরাও শ্রেয়াকে অনেক ভালোবাসা জানিয়েছেন।

Advertisement

সম্প্রতি শ্রেয়ার মায়ের জন্মদিন ছিল। এই বছরের জন্মদিন শ্রেয়ার মায়ের কাছেও স্পেশ‍্যাল। কারণ খুব শীঘ্রই তিনি দিদিমা হতে চলেছেন। এই কারণে শ্রেয়া নিজের মায়ের জন্মদিন যথেষ্ট ঘটা করে পালন করেছেন। তবে আয়োজন ছিল ঘরোয়া। নিজেদের বাড়ি মায়ের জন্মদিন উপলক্ষ্যে সুন্দরভাবে সাজিয়েছিলেন শ্রেয়া। শ্রেয়ার মায়ের পছন্দ মতো ভ‍্যানিলা কেক নিয়ে আসা হয়েছিল। পরিবারের সদস্যদের উপস্থিতিতে লাজুক মুখে কেক কেটে সেলিব্রেশন করলেন শ্রেয়ার মা। মেয়েকে খাইয়ে দিলেন কেকের অংশ।

মায়ের বার্থডে সেলিব্রেশনের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করে মাকে বার্থডে উইশ করে শ্রেয়া লিখেছেন, এই বছর তাঁর মায়ের 60 তম জন্মদিন। তিনি মায়ের সুস্থতা কামনা করে লিখেছেন, তিনি যেন সারাজীবন তাঁর মায়ের ভালোবাসা পান এবং তিনিও সারাজীবন তাঁর মাকে ভালোবাসবেন। শ্রেয়া নিজের মাকে কনগ্র‍্যাচুলেট করে জানিয়েছেন, খুব তাড়াতাড়ি তিনি দিদা হতে চলেছেন।

Advertisement

তবে এই বছর হোলির দিনে রঙ খেলা থেকে বিরত থাকলেন শ্রেয়া। কারণ শ্রেয়া আসন্নপ্রসবা। ফলে রঙের কেমিক্যাল রিয়‍্যাকশনে অনাগত সন্তানের যাতে ক্ষতি না হয়, তাই এই বছরের মতো রঙিন হতে চাইলেন না শ্রেয়া। তার বদলে ধূসর রঙের আউটফিট পরে নিজের বেবিবাম্পের ছবি তুলে তা শেয়ার করে শ্রেয়া জানিয়েছেন, জীবনের এই অপূর্ব মুহূর্তটি ঈশ্বরের দান। তবে শ্রেয়া নিজে ছবিটি তোলেননি। তাঁর স্বামী শিলাদিত‍্য তুলেছেন শ্রেয়ার ছবি। নেটিজেনরাও শ্রেয়াকে হোলির শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

করোনা অতিমারীর কারণে লকডাউনের পথে হাঁটতে চলেছে মহারাষ্ট্র। কিন্তু কোনো লকডাউন বা কারফিউ যে বন্ধুত্ব ও সেলিব্রেশনকে আটকে রাখতে পারে না, এবার তা প্রমাণ করে দিলেন শ্রেয়া ও তাঁর বন্ধুরা। সম্প্রতি শ্রেয়ার কিছু ঘনিষ্ঠ বন্ধু শ্রেয়ার জন্য আয়োজন করেছিলেন ‘সারপ্রাইজ অনলাইন বেবি শাওয়ার’ -এর। শ্রেয়া রীতিমত ‘মম টু বি’ স্যাশ পরে বসেছিলেন ল্যাপটপের সামনে। তাঁর হাতে ছিল দুটো ছোট প্ল‍্যাকার্ড যার একটিতে লেখা ছিল ‘মম্মি টু বি’, অপরটিতে লেখা ছিল ‘কনগ্র‍্যাটস’। শ্রেয়ার বন্ধুদের মধ্যে ছিলেন গায়িকা কৌশিকী চক্রবর্তী (Kaushiki chakraborty)-ও। বন্ধুরা সবাই শ্রেয়ার জন্য রান্না করে পাঠিয়েছিলেন। তাঁদের রান্নাগুলি শ্রেয়া একটি সুন্দর প্লেটে সাজিয়ে সামনে নিয়ে বসেছিলেন। পাঁচ রকম ভাজা, পোলাও, মাংস, দইবড়া, মিষ্টি, পায়েস বাদ যায়নি কিছুই। পুরো অনুষ্ঠানটি ম্যানেজ করেছিলেন শান্তনু মৈত্র (shantanu moitra) ও শিলাদিত‍্য। শ্রেয়া বেবি শাওয়ারের ছবিগুলি শেয়ার করে শান্তনু, শিলাদিত‍্য ও নিজের বান্ধবীদের অনেক ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

Related Articles

Back to top button