নিউজরাজ্য

“আমিও আইনজীবী, যেকোনো সময় আদালতে যেতে পারি”, জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

নব মহাকরণের কিছু অংশ আজ কলকাতা হাইকোর্টের হাতে তুলে দিয়েছে রাজ্য সরকার

×
Advertisement

নব মহাকরণের ব্লক বি এর দ্বিতল থেকে দশম তলা পর্যন্ত কলকাতা হাইকোর্টের হাতে তুলে দিল রাজ্য সরকার। আর সেই অনুষ্ঠানে আজ বৃহস্পতিবার উপস্থিত হয়েছিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো তথা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন তিনি অনুষ্ঠানে এসে হাইকোর্টের বিচার প্রক্রিয়া সম্বন্ধে বিভিন্ন ধরনের মন্তব্য করেন। পাশাপাশি অনুষ্ঠানে উপস্থিত বিচারপতিদের গত ৩-৪ বছরের হাইকোর্টে পড়ে থাকা মামলাগুলির দ্রুত নিষ্পত্তি করার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন।

Advertisement

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আজ বিচারব্যবস্থা প্রসঙ্গে মন্তব্য করতে গিয়ে বলেন, “গণতান্ত্রিক দেশে বিচার ব্যবস্থা, আইন, প্রশাসন, গণমাধ্যম এক একটি স্তম্ভ। একটির মান নষ্ট হলেও বাকিগুলোর ক্ষতি হয়। বিচার ব্যবস্থা কখনো কারুর পক্ষে হয় না। একপক্ষ বিচার ব্যবস্থা অসংবিধানিক। এটা সর্বদা নিরপেক্ষ হয়।” সেই সঙ্গে তৃণমূল সুপ্রিমো আরও জানান যে তিনিও যেকোনো সময় আদালতে চলে এসে আইনজীবী হয়ে যেতে পারেন। আসলে আপনাদের জানিয়ে রাখি, ১৯৮২ সালে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্তর্গত যোগেশচন্দ্র চৌধুরী কলেজ থেকে আইনের ডিগ্রি লাভ করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

পড়ে থাকা মামলার দ্রুত শুনানি প্রসঙ্গে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এদিন বলেছেন, “আমিও আইনজীবী। আমি সিনিয়র বার কাউন্সিল মেম্বার। আমার কাছে কার্ড আছে। যেকোনো সময় প্র্যাকটিসের জন্য আমি কোর্টে আসতে পারি। মানবধিকার সংক্রান্ত কিছু কেসের জন্য আমি এর আগে লড়েছি। তাই আইনজীবী বন্ধুদের বলার আমিও আপনাদের আইনি বন্ধু।” প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, রাজ্য এখন নিয়োগ কেলেঙ্কারি এবং গরু পাচার মামলায় জর্জরিত। জেল হেফাজতে পার্থ চট্টোপাধ্যায় এবং অনুব্রত মণ্ডল। আদালতে তৃণমূল নেতাদের প্রায় রোজ তুলোধোনা করা হচ্ছে। এই মুহূর্তে তৃণমূল সুপ্রিমোর এমন মন্তব্য সত্যিই তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

Advertisement

Related Articles

Back to top button