নিউজরাজ্য

রাজ্যের সব পরিবার পাবে স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পের সুবিধা, বড় ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

Advertisement

রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনের আগে আবারও একটি বড় ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন তিনি ঘোষণা করে জানালেন এবার থেকে স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পের সমস্ত পরিবারকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। তবে, স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পের সুবিধা পেতে হলে আপনাকে শুধুমাত্র এই প্রকল্পের সাথে যুক্ত থাকতে হবে। যদি আপনি অন্য কোন স্বাস্থ্য প্রকল্পের সাথে যুক্ত থাকেন তাহলে কিন্তু এই পরিষেবা পাবেন না। আগামী ১ ডিসেম্বর থেকে এই নতুন নিয়ম কার্যকর হবে।

মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্য অনুযায়ী, ইতিমধ্যেই রাজ্যের ৭.৫ কোটি মানুষ এই স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পের সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন। আগামী কিছুদিনের মধ্যে এই সংখ্যা ১০ কটিতে আনার লক্ষ্যমাত্রা নেওয়া হয়েছে। স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পে যারা যুক্ত থাকবেন তাদের সবাইকে স্মার্ট কার্ড দেওয়া হবে। ওই স্মার্ট কার্ডে পরিবারের প্রত্যেকের নাম লেখা থাকবে। এই স্মার্ট কার্ড দেখালে আপনি বেসরকারি হাসপাতালে বিনামূল্যে চিকিৎসা করাতে পারবেন। তবে এই বেসরকারি হাসপাতালে বিনামূল্যে চিকিৎসার লিমিট হলো প্রতি পরিবারপিছু বছরে ৫লক্ষ টাকা।

এছাড়াও, আগামী ১ ডিসেম্বর থেকে দুয়ারে দুয়ারে সরকার প্রকল্প চালু করা হচ্ছে। এর মাধ্যমে আপনারা স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পের জন্য আবেদন জানাতে পারবেন। এই স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পের কার্ড থাকলে আপনারা সরকারি হাসপাতালে বিনামূল্যে চিকিৎসা পাবেনই, বেসরকারি হাসপাতালে বিনা খরচে চিকিৎসা করাতে পারবেন। শুধুমাত্র কলকাতার হাসপাতালে নয়, ভেলোরের হাসপাতালে এবং এইমসের মত হাসপাতালেও এই কার্ডের সুবিধা কাজ করবে।

পরিবারের প্রধান মহিলা সদস্যের নামে এই কার্ড তৈরি করা হবে। এর ফলে মহিলাদের ক্ষমতায়ন করা সম্ভব হবে বলে মতামত মুখ্যমন্ত্রীর। তিনি আরো জানিয়েছেন, এই স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পের বাস্তবায়নে প্রতিবছর রাজ্যের ২,০০০ কোটি টাকা খরচ হবে। তিনি জানিয়েছেন আগামী দিন থেকে যখন দুয়ারে দুয়ারে প্রকল্প শুরু হবে। তখন আপনি আবেদন জানাতে পারবেন। যখন কার্ড এসে যাবে তখন শুধু নিয়ে এলেই হবে।

Tags

Related Articles

Back to top button