টলিউডবিনোদনভাইরাল & ভিডিও

Rudranil-Raj: ‘রুডির একটা বউ চাই’, রাজের বাড়িতে রুদ্রনীলে কাকার বিয়ের আলোচনাতে যোগ দিল ছোট্ট ইউভান! ভাইরাল ভিডিও

Advertisement

টলিপাড়ার টিম বলতেই প্রথমেই মাথায় আসবে এদের নাম। হ্যাঁ ঠিক ধরেছেন রাজ চক্রবর্তীআর রুদ্রনীল ঘোষের কথা বলছি। বিরোধী রাজনৈতিক শিবিরের হলে আর আলাদা মতাদর্শী হলে এঁরা একে-অপরের সঙ্গে দিব্যি বন্ধুত্ব টিকিয়ে রেখেছেন। উৎসবের মরসুমে মাঝেমধ্যেই দুজনে আড্ডায় মেতে ওঠেন। আর এবার কিনা দুই বন্ধুকেই একসঙ্গে করোনা কাবু করল! আজ্ঞে। মঙ্গলবার রাতে রাজ চক্রবর্তী জানান, তিনি ও শুভশ্রী কোভিডে আক্রান্ত হন। তার ২৪ ঘণ্টাও পেরোয়নি। এরপরেই বুধবার রুদ্রনীল ঘোষ জানালেন, তাঁরও কোভিড রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে।

Advertisement

টলিউড জুড়ে এখন শুধুই বিষন্নতা। কারণ এই দুষ্টু করোনার কোপে পড়েছেন টলিউডের একাধিক তারকা। প্রতিদিনই গণমাধ্যম খুললে খবর আসছে একের পর এক অভিনেতা-অভিনেত্রীর সংক্রমিত হওয়ার। এই মন খারাপের মাঝেই বৃহস্পতিবার আরও একটা বসন্ত পার করে ফেললেন অভিনেতা রুদ্রনীল ঘোষ। আর এই বিশেষ দিনে নিজের দীর্ঘদিনের বন্ধুকে অভিনব শুভেচ্ছা বার্তা শেয়ার করলেন পরিচালক রাজ চক্রবর্তী।

দুজনের রাজনৈতিক চিন্তাভাবনা এখন আলাদা, আর রাজনৈতিক দলও আলাদা। তবে রাজনীতির ময়দান ছাড়া প্রায়শই তৃণমূল বিধায়ক রাজ চক্রবর্তী ও তাঁর পরিরাবের সঙ্গে সময় কাটান বিজেপির রুদ্রনীলের। গত বছর বিধানসভা ভোটের আগে প্রকাশ্যে পরস্পরের মন্তব্যের বিরোধিতা করেছেন এই দুই অভিন্ন হৃদয় বন্ধু, তবে চিড় ধরেনি দুজনের ব্যক্তিগত সম্পর্কে। এখনও রাজের বাড়ির ঘরোয়া আড্ডাতে সবসময় উপস্থিত হন রুদ্রনীল। দিন কয়েক আগের একটি মিষ্টি ভিডিও আজ প্রকাশ্যে আনলেন রাজ, আর সেখানে আলোচনার প্রসঙ্গ ‘রুদ্রনীলের পাত্রী চাই’। আর এই আলোচনাতে সামিক হয়েছে ছোট্ট ইউভান ও।

Advertisement

রাজের শেয়ার করা ভিডিয়োর শুরুতেই দেখা গিয়েছে পরিচালক রাজ চক্রবর্তীর মায়ের পাশে বসে রয়েছেন রুদ্রনীল। লীলা দেবী আক্ষেপ করে বললেন ‘সবাই বিয়ে করল এ রুদ্রনীল আর বিয়ে করল না। তোরা জোর করে বিয়ে দিতে পারলি না। তুই নেতা মানুষ…’। রুদ্রনীল হাসি চেপে রাখতে পারেননি, বলে বসেন- ‘ওর বিধানসভা থেকে খুঁজে দেবে। প্ল্যাকার্ড নিয়ে বেরিয়েছে…. দল, মত নির্বিশেষে আবেদন করতে পারেন’। পাশ থেকে শুভশ্রী বলে উঠেন, ‘রুডির বউ চাই, বউ দাও’। বাবা-মা, ঠাকুমারা যখন কাকা রুদ্রনীলের বিয়ে নিয়ে এতো আলোচনা করছে তখন সেখানে হঠাৎ লত্র হাজির হয়ে যায় ইউভানও। চিৎকার করে সেও কিছু বলবার চেষ্টা করে। রাজ-পুত্রের এই কীর্তি দেখে রুদ্রনীল বলেন, ‘হ্যাঁ, তুমিও যোগ দাও… বিয়ের আলোচনা হচ্ছে’।

এদিন রুদ্রনীলের জন্য রাজের ক্যপাশানে লেখেন, ‘শুভ জন্মদিন রুদ্রনীল ঘোষ। খুব তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে উঠ। মেয়ে দেখা শুরু করতে হবে’। বিধায়ক বন্ধু যখন মেয়ে দেখা শুরু করছেন, তবে কি এই বছর রুদ্রনীলের বিয়ের সানাই বাজবে টলিউডে। অবশ্য এই উত্তর না পাওয়া গেলেও অনুগামীরা ভালোবাসা জানিয়েছেন। নিমেষে ভাইরাল হয় এই পোস্ট।

Advertisement

Related Articles

Back to top button