রাজ্য

West Bengal :জালে ধরা পড়ল বিশালকৃতি তেলেভোলা মাছ, বিক্রি হল ৩৬ লক্ষ টাকায়! পেটে রয়েছে মূল্যবান সম্পদ

একটা মাছের সাইজ কত হতে পারে ২০-৩০ কিলো। কিন্তু কখনো শুনেছেন ৭৮ কিলো মাছ হয়? এবার এটাই হল। মৎস্যজীবীরা মাছ ধরতে গিয়ে জালে ধরা পরল পেল্লাই সাইজের এজ তেলেভোলা । যার ওজন প্রায় ৭৮ কেজি ২০০ গ্রাম। বিশ্বাস না হলে এটাই সত্যি। এই মাছটি প্রত্যন্ত সুন্দরবনের গোসাবার কপূরা নদীতে ধরা পড়ে একদল মৎস্যজীবীদের জালে। মৎস্যজীবীরাও এই তেলেভোলাকে দেখে অবাক।

মৎস্যজীবী বিকাশ বর্মন দীর্ঘদিন ধরে সুন্দরবনের নদীতে মাছ ধরেন। সেইমতই বৃহস্পতিবার সকালে গোসাবা ব্লকের দুলকির সোনাগাঁও গ্রাম থেকে বিকাশ বর্মন, তাঁর বন্ধুরা মিলে রাহুল বর্মন, সৈকত বর্মন, কমলেশ বর্মন ও কালিপদ বর নামে পাঁচ জন মৎস্যজীবী সুন্দরবনে মাছ ধরার উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছিলেন। আর নানান রকম মাছ ধরতে ধরতে শুক্রবার সন্ধ্যায় তাঁদের জালে ধরা পড়ে যায় প্রায় ৭ ফুট লম্বার এই পেল্লাই সাইজের তেলেভোলা মাছ।

এরপর শনিবার রাতে এই বিশালকৃতি মাছটিকে ক্যানিংয়ের প্রভাত মন্ডলের মাছের আড়তে নিয়ে আসেন। আর সেখানে থেকেই এই মাছ বিক্রির উঠতে থাকে। সেদিন রাতে মাছটি ৪৯,৩০০ টাকা প্রতি কেজি দরে বিক্রি হয়। পুরো মাছটি বিক্রি হল প্রায় সাড়ে ৩৬ লক্ষ টাকায়। আর এই মাছটি কিনে নিল কলকাতার কেএমপি নামের এক প্রতিষ্ঠান। জানা যাচ্ছে, এই মাছের পেটে রয়েছে মূল্যবান কিছু সম্পদ। ভাবছেন তো মাছের ভিতরে সোনা হিরে আছে নাকি?

না এক্কেবারেই মাছের পেটে সোনাও নেই আর হীরে ও নেই। আছে মাছের পেটে থাকা পটকা। আর এটাই হচ্ছে এই তেলেভোলার সম্পদ। কারণ এই পটকা দিয়ে তৈরি করা হবে বিভিন্ন ধরনের ওষুধ, জিনিসপত্র। আর সেগুলো ব্যবহৃত হবে নানান অস্ত্রোপচারের পর সেলাইয়ের কাজে । সেই কারণেই বাজারে এই মাছের এত দাম হয়েছে।

Related Articles

Back to top button