বলিউডবিনোদন

Aishwarya Rai Bachchan: ‘চাকা চাক’ গানে মেয়ে আরাধ্যার মন মাতানো নাচ, দেখে অবাক ঐশ্বর্যও

×
Advertisement

ঐশ্বর্য রাই বচ্চন বলিউড ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম প্রথম সারির সুন্দরী অভিনেত্রী। নব্বইয়ের দশকের সুন্দরী অভিনেত্রীদের মধ্যে একজন তিনি। তার নামের সাথে যুক্ত রয়েছে বিশ্বসুন্দরীর তকমাও। মিডিয়াতে কোনো না কোনো কারণে চর্চায় থাকেন এই অভিনেত্রী। একটা সময় একাধিক হিট ছবি উপহার দিয়েছেন নিজের দর্শকদের। বর্তমানে বড়পর্দা থেকে বেশ কিছুটা দূরে থাকলেও নিজের দাপট আগের মতোই বজায় রেখেছেন তিনি, তা নিয়ে কোন সন্দেহই নেই। পর্দায় একঝলক তাকে দেখার অপেক্ষায় থাকেন তার অগণিত ভক্তরাও। সম্প্রতি নিজের মেয়ে আরাধ্যা বচ্চনের সূত্র ধরেই চর্চার আলোয় অভিনেত্রী।

Advertisement

এই মুহূর্তে সোশ্যাল মিডিয়ার পাতায় একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে যেখানে আরাধ্যাকে বলিউডের হিট গান ‘চাকা চাক’এর তালে জমিয়ে নাচতে দেখা গিয়েছে। একেবারে পর্দার সারা আলির খানের মতোই সেজেছিলেন তিনি। শাড়ির রং থেকে শুরু করে পরার ধরন পর্যন্ত সব হুবহু মিলিয়ে সেজেছিলেন আরাধ্যা। বলিউডের এই হিট গানের সাথে তার নাচ দেখে নেটনাগরিকদের পাশাপাশি অবাক হয়েছেন মা ঐশ্বর্যও। সম্প্রতি সেই ঝলক ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ার পাতায়, যা দেখে নিজের চোখকেই বিশ্বাস করতে পারছেন না নেটমহলের একাংশ। তাদের একাংশের মতে আরাধ্যা নিজের মায়ের মতই সুন্দরী হয়েছে। তিনিও কারোর থেকে কম কিছু নন। সাজগোজ থেকে শুরু করে নাচের ধরন সবকিছুতেই রয়েছে দক্ষতা। বলাই বাহুল্য, রীতিমতো টেক্কা দিয়েছেন পর্দার সারা আলি খানকেও।

Advertisement

আনন্দ এল রাই পরিচালিত ‘আতরাঙ্গী রে’এর গানের তালেই ছিলেন আরাধ্যা। ছবিতে সারা আলি খানকে দেখা গিয়েছিল এই গানের দৃশ্যে। দর্শকদের মাঝে বিপুল জনপ্রিয়তা অর্জন করেছিল এই গান। শ্রেয়া ঘোষালের কন্ঠে ‘চাকা চাক’ হয়ে উঠেছে আরও বেশি জনপ্রিয়। তবে আপাতত আরাধ্যার এই নাচের ভিডিও সব ভুলিয়ে দিয়েছে নেটনাগরিকদের। বচ্চন পরিবারের মেয়ে হওয়ার সুবাদে না চাইতেও প্রায়ই আরাধ্যা বিভিন্ন ভিডিও কিংবা ছবির সূত্র ধরে চর্চার আলোয় থাকেন। তবে ভিডিওতে যে মেয়েটিকে দেখা গিয়েছে সেটিই যে আরাধ্যা বচ্চন! তার সত্যতা যাচাই করা হয়নি। তবে মেয়েটিকে দেখে আরাধ্যা বলেই মনে করছেন অধিকাংশ নেটজনতা। চুল কাটার ধরন থেকে শুরু করে হাবভাব সবটাই মিলে যাচ্ছে তার সাথে। তাই সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া ভিডিওর এই মেয়েটিকে আরাধ্যা হিসেবেই ধরে নিয়েছেন অধিকাংশ নেটজনতা।

Related Articles

Back to top button