টলিউডবাংলা সিরিয়ালবিনোদন

Sudipa-Agnidev: গুপ্তশত্রু, জ্ঞাতিশত্রু,কোনোরকম চক্রান্ত থেকে বাঁচাতে সুদীপা- অগ্নিদেবের নতুন প্রয়াস

ছোটপর্দার জনপ্রিয়তম সঞ্চালিকা সুদীপা চট্টোপাধ্যায়। প্রত্যেকদিন হাতা খুন্তি নিয়ে বিকেলে প্রিয় দর্শকদের সামনে হাজির হয়ে যায় জি বাংলার ‘রান্নাঘর এ। শুধু সঞ্চালিকা নয় সুদীপা একাধারে চিত্রনাট্যকার, পরিচালক। ‘ববির বন্ধুরা’ ছবিটি পরিচালনা করেছিলেন তিনি। পাশাপাশি স্বামী পরিচালক-প্রযোজক অগ্নিদেব চট্টোপাধ্যায় এবং দুই পুত্রদের নিয়ে ভরা সংসার সুদীপার। এত ব্যস্ততার মধ্যেও নিজেকে প্রায় সময় নতুন নতুন কাজে যোগ দিতে ভালোবাসেন।

গত আগস্টেই নিজের শাড়ি বিপণী’র উদ্বোধন করলেন অভিনেত্রী। দোকানের নাম দিয়েছেন সুদীপা চ্যাটার্জি স্টোর। শুধু তিনি শাড়ি ক্রয় করবেননা পাশাপাশি শাড়ির সঙ্গে সঙ্গে বাংলার শিল্পকর্মকে আরও বেশি করে অন্যান মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়ার উদ্দেশ্যে এই দোকান তিনি খুলেছেন। এখানে শুধু শাড়ি ক্রয় হবেনা পাশাপাশি শাড়ির সাথে ম্যাচিং বিভিন্ন জিনিস যেমন ডোকরা থেকে গয়না বড়ি সবই পাওয়া যায়। এখানেই শেষ নয় এবার এই কঠিন সময়ে মানুষকে বিপদ মুক্ত করতে এবার সুদীপা চট্টোপাধ্যায় সঙ্গে তাঁর স্বামী অগ্নিদেব চট্টোপাধ্যাযয়ের নতুন প্রয়াস।

সুদীপার এই স্টোরে এবার সাধারণ মানুষেরা পাবেন অগ্নিদেব চট্টোপাধ্যায়ের হাতে তৈরি এমন এক জিনিস- যা যেকোন বিপদ আপদ থেকে বাঁচতে সাহায্য করবে সাধারণ মানুষকে। এমনই অভিমত সুদীপার। মা আসতে আর বেশি দেরী নেই তার আগেই অগ্নিদেব চট্টোপাধ্যায়ের নিজের হাতে গড়েছেন ডোকরার মা দুর্গা। তবে সুদীপা নিজের সোশ্যাল ওয়ালে জানান, আপাত দৃষ্টিতে খুব সাধারন ডোকরার কালেকশন মনে হলেও এর কিছু বিশেষত্ব আছে।

সোশ্যাল পেজে কয়েকটি মূর্তির ছবি দিয়ে সুদীপা লিখেছেন, ‘পুজোয় এবার ‘মা দুর্গা’কে ঘরে নিয়ে যান। ঘর আলো করে থাকবেন। সব বিপদ-আপদে,আপনার পরিবারের রক্ষা করবেন,ও আগলে রাখবেন। আর দশানন রাবন- আপনার বাড়ীতেই দশদিক থেকে আগলে রাখবে। গুপ্তশত্রু,জ্ঞাতিশত্রু,কোনোরকম চক্রান্ত,তন্ত্র-মন্ত্র,কোনোটাই কাজে লাগবে না,যদি এই মুর্ত্তি- প্রবেশদ্বারের একদম মুখোমুখি রাখা যায়। যাতে যেই আপনার বাড়ীতে ঢুকুক- প্রথমেই যেন এই রাবনে নজর যায়। ব্যাস! তাতেই কেল্লাফতে। আর এই মুর্ত্তিটির স্পেশালিটি হলো- এটির পেছনেও একটি মুখ আছে,যা আপনাকে গোপন শত্রুর হাত থেকে বাঁচাবে,বলে আমাদের বিশ্বাস। এছাড়া পাবেন- রামসীতা,গনেশ,শিব, মা কালী, পুরীর গোপাল ও আরও অনেক কিছু। বিশ্বাসে মিলায় বস্তু,তর্কে বহুদুর- এই কথা মাথায় রেখেই,ছবিগুলো শেয়ার করলুম। যার ভালো লাগবে,দেখবেন।’ অনুরাগীরা সুদীপা ও অগ্নিদেবের এই প্রয়াসকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

Related Articles

Back to top button