×
বলিউডবিনোদন

জিম থেকে বেরোতে রাস্তা কাটলো বিড়াল, খারাপ খবরের পূর্বাভাস পেলেন অভিনেত্রী

Advertisement

রাখি সাওয়ান্ত ক্যামেরার সামনে নিজের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে ভীষণভাবে খোলামেলা। ভ্যালেন্টাইন্স ডের আগেই স্বামী রিতেশের সাথে বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটেছে তার। এই মুহূর্তে তিনি ভীষণভাবে ডিপ্রেশনের রয়েছেন তা অবশ্য তিনি নিজেই জানিয়েছেন। নেটিজেনদের একাংশের দাবি তার কোন ঠিক নেই। কখনো বলেন তার বিয়ে হয়নি, আবার কখনো বলেন তার বিয়ে হয়ে গিয়েছে, আবার কখনো নিজেই ঘোষণা করে দেন তার বিবাহ বিচ্ছেদ হয়েছে। ক্যামেরার সামনে তার বলা কথার গুরুত্ব দেন না বেশিরভাগই। সম্প্রতি জিম থেকে বেরোনোর সময় যা করলেন, দেখে নিন।

Advertisement

তিনি যখন ওয়ার্কআউট করে জিম থেকে বেরোচ্ছিলেন তখন তার সামনে দিয়ে একটি বিড়াল চলে যায়। বিড়াল রাস্তা কেটে দেওয়ায় তিনি সেখানে দাঁড়িয়েই কাঁদতে শুরু করে দেন। আর বলতে থাকেন এরপরের তার সাথে আবার আরও কি খারাপ হতে চলেছে? সেখানে উপস্থিত থাকা পাপারাজিৎরা তাকে অনেক বোঝানোর চেষ্টা করলেও তিনি বুঝতে রাজি ছিলেন না। তারা অভিনেত্রীকে বলেন তার সাথেই আর কিছু খারাপ হবে না, যা হবে ভালো হবে কিন্ত তাও তিনি কাঁদতে থাকেন দাঁড়িয়ে। বিড়ালের রাস্তা কেটে দেওয়াকে কুসংস্কার বলেই ধরেন অনেকে। কিন্তু সেই কুসংস্কার মানেন রাখি সাওয়ান্ত নিজেই।

Advertisement

এরপরে তিনি আরো বলেন, তিনি এখনও তার স্বামী রিতেশকে ভালোবাসেন। যা হয়েছে তার জন্য নিজেকেই দোষারোপ করলেন তিনি। আর সেই কারণের ওপর ভিত্তি করে রিতেশের পাশাপাশি সকলের উদ্দেশ্যে “সরি”ও বলেন। তিনি রীতিমতো পাপারাজিৎদের ক্যামেরার সামনে হাউ হাউ করে কাঁদতে থাকেন। তিনি যে বর্তমানে পুরোপুরি ডিপ্রেশনে চলে গেছেন সেকথাও তিনি জানান সকলের উদ্দেশ্যে। তবে এই ভিডিওগুলি ভাইরাল হওয়ার পর থেকেই নেটিজেনদের একাংশ এটিকে নাটক বলেই চিহ্নিত করেছেন।

তবে বলিউডের বড় বড় তারকারা যেমন শাহরুখ খান কিংবা সালমান খান রাখি সাওয়ান্তকে বেজায় পছন্দ করেন। তারা কিন্তু কেউই তার প্রতি বিরক্ত নন। শুরুর দিকে বলিউডে একাধিক কাজ করেছেন তিনি। বর্তমানে সাধারণের কাছে তার একটা অদ্ভুত ইমেজ তৈরী হয়ে রয়েছে। শেষ বিগ বস সিজনে দেখাও গিয়েছিল তাকে। এমনকি সেখানেই তিনি জানিয়েছিলেন তার বিয়ে হয়ে গিয়েছে। তার আগে কেউই জানতেন না তার বিয়ের কথা। বিগ বসের সেটে এমন কথা শুনে অবাক হয়েছিলেন সকলেই। তবে সমপ্রতি ভাইরাল ভিডিও দেখে অবাক হয়েছেন আরও বেশি।

Related Articles

Back to top button