টলিউডবিনোদন

মিঠু দার প্রয়াণে রীতিমতো কান্নায় ভেঙে পড়লেন রচনা ব্যানার্জী, তাঁর চলে যাওয়া মেনে নিতে পারছেন না অভিনেত্রী

×
Advertisement

বুধবার রাত ১’টার সময় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে না ফেরার দেশে চলে গেলেন অভিষেক চ্যাটার্জী। টলিউড জগতের অত্যন্ত পরিচিত একজন অভিনেতা তিনি। তবে বর্তমানে বড়পর্দার তুলনায় বেশিরভাগ ছোটপর্দাতেই দাপট ছিল তার। বর্তমানে স্টার জলসার খরকুটো ধারাবাহিকে গুনগুনের বাবা কৌশিক বাবুর চরিত্রে অভিনয় করছিলেন তিনি। বুধবার কাজ করতে করতেই অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন অভিনেতা। এদিন রাতেই সকলকে কাঁদিয়ে চলে গেলেন তিনি।

Advertisement

তার প্রয়াণে গোটা টলিউড ইন্ডাস্ট্রি রীতিমতো শোকোস্তব্ধ। তার মৃত্যু সংবাদ রীতিমত অবাক করেছে তার কলাকুশলীদের। এই গোটা বিষয়টি অবিশ্বাস্য লাগছে সকলের কাছে। তিনি হাসপাতালে ভর্তি হতে চাননি বলে বাড়িতেই শুরু হয়েছিল চিকিৎসা। তবে শেষপর্যন্ত শেষ রক্ষা হলো না। ২০২২’এ এসে মাত্র ৫৭ বছর বয়সে অভিনয় জীবনে তার পথ চলা থেমে গেল।

বর্তমানে তিনি ‘খরকুটো’ ও ‘মোহর’ ধারাবাহিকে অভিনয় করছিলেন একসাথে। এদিন এই দুই ধারাবাহিকের সমস্ত কলাকুশলীরা উপস্থিত ছিলেন অভিনেতাকে শ্রদ্ধা জানাতে। পাশাপাশি উপস্থিত ছিলেন টলিউড জগতের একাধিক তারকারা। উপস্থিত ছিলেন তার সহ-অভিনেত্রী রচনা ব্যানার্জীও। তিনি রীতিমতো অভিনেতাকে শায়িত অবস্থায় দেখে কান্নায় ভেঙে পড়েন। তিনি বিশ্বাসই করতে পারছিলেন না অভিনেতা আর নেই।

Advertisement

সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় তিনি জানিয়েছেন, অভিষেক চ্যাটার্জী একজন ভীষণভাবে প্রাণবন্ত মানুষ ছিলেন। তিনি অভিনেতা হিসেবে বেঁচে থাকতে বেশি ভালোবাসতেন। লাইট-ক্যামেরা-অ্যাকশন তাকে উজ্জীবিত করতো। অভিনেত্রীর কথায়, আর নতুন কোন কাজে দেখতে পাবেন না অভিনেতাকে। তার করে যাওয়া কাজগুলোই থেকে যাবে আজীবন। ভিডিওতে অভিনেত্রীকে দেখেই বোঝা গিয়েছে তিনি ঠিকভাবে কথা পর্যন্ত বলতে পারছিলেন না। অভিনেতার এমন হঠাৎ চলে যাওয়া সবাইকে রীতিমতো ভিতর থেকে নাড়িয়ে দিয়েছে।

Video

Related Articles

Back to top button