×
দেশনিউজ

Narendra Modi: উড়িষ্যার প্রশংসায় পঞ্চমুখ প্রধানমন্ত্রী মোদি, বাংলার জন্য খরচ করলেন না একটিও শব্দ

আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় এর বদলি নিয়ে সঙ্ঘাত চরমে রাজ্য এবং কেন্দ্রীয় সরকারের

Advertisement

ওড়িশা সরকার এবং ভারত সরকার একসাথে মিলে ঘূর্ণিঝড় যশের ফলে হওয়া সমস্ত ক্ষয়ক্ষতি সামলে নেবে, এদিন টুইটে এমনটাই লিখলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। কিন্তু বাংলার ব্যাপারে একটা কথাও খরচা করলেন না তিনি। ঘূর্ণিঝড় যশের ফলে বিধ্বস্ত উড়িষ্যা রাজ্য পরিদর্শনে এসেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তার সাথেই এসেছিলেন বাংলা পরিদর্শনে। এলাকা পরিদর্শনের পর উড়িষ্যার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়কের সঙ্গে বৈঠক করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

Advertisement

পাশাপাশি কিছুক্ষণের জন্য হলেও প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই বৈঠকের ২৪ ঘন্টা পরেই উড়িষ্যা সরকারের ভূয়সী প্রশংসা করে টুইট করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। কিন্তু উল্লেখযোগ্যভাবে, বাংলার জন্য কিছুই বললেন না তিনি। নরেন্দ্র মোদী জানিয়ে দিলেন, উড়িষ্যার ভুবনেশ্বরে রিভিউ মিটিং অত্যন্ত কার্যকরী হয়েছে। বিপর্যয় মোকাবিলা করার জন্য উড়িষ্যার সঙ্গে যৌথভাবে কাজ করবে ভারত সরকার। প্রধানমন্ত্রীর এই টুইটের পর তাকে ধন্যবাদ জানিয়ে উড়িষ্যার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়ক টুইট করেছেন।

নবীন পট্টনায়ক লিখেছেন, “ওড়িশার জন্য ত্রাণ এবং পুনর্বাসনের উদ্দেশ্যে ৫০০ কোটি টাকা দেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে ধন্যবাদ জানাই। এছাড়াও বিপর্যয় মোকাবিলা করার জন্য ওড়িশা সরকারের পরিকাঠামোগত ব্যবস্থার প্রশংসা করার জন্য তাকে ধন্যবাদ।” প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের পর উড়িষ্যার মুখ্যমন্ত্রী গতকাল জানিয়েছিলেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি যে উড়িষ্যা পর্যবেক্ষণে এসেছেন তার জন্য তিনি অত্যন্ত খুশি। পাশাপাশি তিনি জানিয়েছিলেন, কেন্দ্র সরকারের উপরে যেহেতু এখন করোনাভাইরাসের বোঝা রয়েছে, তাই তিনি কেন্দ্রীয় সরকারের থেকে কোন অর্থ সাহায্য চাইবেন না।

Advertisement

অন্যদিকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে রিভিউ মিটিং এ উপস্থিত হলেন না। গতকাল প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কিছুক্ষণ দেখা করে তাকে একটি রিপোর্ট তিনি পেশ করেছিলেন। সেই রিপোর্টে তিনি ২,০০০ কোটি টাকা চেয়েছিলেন রাজ্যের জন্য। মুখ্যমন্ত্রীর মুখ্যসচিব, কিংবা মুখ্যমন্ত্রী নিজে কেউ প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে রিভিউ মিটিং এ না থাকার কারণে গতকাল বহু বিজেপি নেতা বীতশ্রদ্ধ হয়ে টুইটে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেন। তারপরেই সেদিনকেই রাতে মুখ্য সচিবের কাছে চিঠি আসে, তাকে কেন্দ্রীয় সরকারের হয়ে কাজ করতে হবে, আর রাজ্য সরকারের কর্মচারী হিসেবে তিনি থাকতে পারবেন না। যদিও আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় এর বদলি ঘিরে রাজ্য রাজনীতিতে আবারো ঘনীভূত হচ্ছে বিতর্ক।

Related Articles

Back to top button