নিউজরাজ্য

বকেয়া মহার্ঘ ভাতার দাবিতে বিক্ষোভ হাইকোর্টে, উপায় না দেখে কর্মচারীদের কাজ করলেন প্রধান বিচারপতি!

বকেয়া মহার্ঘ ভাতার দাবিতে কলকাতা হাইকোর্টে বিক্ষোভ দেখালেন হাইকোর্টের কর্মচারীরা

×
Advertisement

আদালতের নির্দেশ থাকা সত্ত্বেও রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের বর্ধিত হারে বকেয়া মহার্ঘ ভাতা মেটাইনি রাজ্য সরকার। তার মধ্যেই কয়েকদিন আগেই দুর্গাপূজার জন্য বিপুল পরিমাণে অর্থ সহজে কথা ঘোষণা করে রাজ্য। এই আবহে আদালতে আবারও মামলা করা হয়। অন্যদিকে ক্ষুব্ধ হয়ে সরকারি কর্মীরা দু ঘন্টার জন্য কর্ম বিরতির ডাক দেন আজ। বিক্ষোভ প্রদর্শিত হয় হাইকোর্টে, আদালতের কর্মচারীরা কাজ ছেড়ে প্ল্যাকার হাতে নিয়ে প্রতিবাদ দেখান। কর্মচারীদের বিক্ষোভের সময় আদালতের কাজকর্ম যেতে বন্ধ না থাকে, এর জন্য নিজেই অনেক কাজ করে ফেলেন বিচারপতি প্রকাশ শ্রীবাস্তব। টেবিলে মামলার ফাইল তুলে দেওয়া এমনিতে আদালতের কর্মীর কাজ। কিন্তু আজ মামলা চলাকালীন সময়ে বিচারপতি শ্রীবাস্তব নিজেই মামলার ফাইল টেবিলে তুলে নিয়ে কাজ করেন।

Advertisement

রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের ৩১ শতাংশ হারে মহার্ঘ ভাতা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল কলকাতা হাইকোর্ট। এখনো পর্যন্ত রাজ্য সরকারের তরফ থেকে সেই সিদ্ধান্ত আমল দেওয়া হয়নি। সরকার এখনো পর্যন্ত কার্যকর করেনি কলকাতা হাইকোর্টের এই সিদ্ধান্ত। তাই সরকারি কর্মীদের ক্ষুব্ধ করে উচ্চ আদালতে আগের রায়ের পুনঃ বিবেচনার আবেদন জানিয়েছিল সরকার। এই আবহে সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ প্রদর্শন করার সিদ্ধান্ত নিলেন কর্মচারীরা।

মঙ্গলবার হাইকোর্টের কর্মচারীরা কর্ম বিরতির ডাক দিয়েছেন বকেয়া মহার্ঘ ভাতার দাবিতে। বিচারপতিরা উপস্থিত থাকলেও কোর্ট থেকে বাইরে বেরিয়ে যান কর্মচারীরা। প্রধান বিচারপতির এজলাস থেকেও কর্মচারীরা চলে যান। ফলে ফাকা হয়ে যায় সম্পূর্ণ এজলাস। আদালতের কাজ একেবারে থমকে যাবার যোগাড় হয়। সেই পরিস্থিতিতেই আদালতের কাজ যাতে চলতে থাকে তার জন্য নিজেই এগিয়ে আসেন প্রধান বিচারপতি প্রকাশ শ্রীবাস্তব। নিজেই মামলার বেশ কিছু ফাইল টেবিলে তুলে নিয়ে শুরু করেন কাজ। পাশাপাশি, রাজ্য সরকারের ওই সিদ্ধান্ত নিয়ে রাজ্য সরকারকে তুমুল কটাক্ষ করেন বিচারপতি।

Advertisement

Related Articles

Back to top button