ব্যবসা-বানিজ্য ও অর্থনীতি

চাকরিজীবীদের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা, চাকরি না থাকলেও দেওয়া যাবে বিমার কিস্তি, জানুন বিস্তারিত

বর্তমান পরিস্থিতিতে অর্থাভাবে ভুগছেন অনেকেই। অনেক সময় অর্থাভাবের জন্যই তারা বিমার কিস্তি দিয়ে উঠতে পারেন না। তবে এবার থেকে তা হবে না। চাকরি না থাকলেও বিমার গ্রাহকরা ঠিক সময়ে দিতে পারবেন বিমার কিস্তি। তবে সেক্ষেত্রে বিমা হতে হবে ভারতীয় জীবন বিমা নিগমের।

নতুন কোনো জীবন বিমা হোক কিংবা পুরনো বিমার কিস্তির টাকা জমা দেওয়া হোক সে নিয়ে আর চিন্তা থাকলো না গ্রাহকদের। প্রভিডেন্ট ফান্ডের টাকা দিয়েই দেওয়া যাবে বিমার কিস্তি। তবে সেক্ষেত্রে বিমা হতে হবে ভারতীয় জীবন বিমা নিগমের, তা না হলে অবশ্য টাকা দেওয়া সম্ভব নয়। অর্থাৎ কোন গ্রাহক যদি ভারতীয় জীবন বিমা নিগমের উপভোক্তা হয় তাহলে নতুন কিংবা পুরনো যেকোনো বিমার কিস্তি দিয়ে দেওয়া হবে এমপ্লয়িজ প্রভিডেন্ট ফান্ড অর্গানাইজেশনের তরফ থেকে।

আরো পড়ুন :  এই স্কীমে দিনে ১৫০ টাকা করে জমালে পাবেন ৫ কোটি ৭১ লক্ষ টাকা

তবে তার জন্য গ্রাহকদের একটি ফর্ম ভর্তি করে জমা দিতে হবে। ইপিএফও’এর ১৪ নম্বর ফর্ম ভর্তি করতে হবে গ্রাহকদের। এই ফর্ম ভর্তি করে জমা দিয়ে দিলেই ইপিএফও’র তরফ থেকে কিস্তির টাকা দিয়ে দেওয়া হবে। উল্লেখ্য, এই ফর্ম পাওয়া যাবে এই অর্গানাইজেশনের ওয়েবসাইটে। ওয়েবসাইট থেকে ফর্ম খুঁজে ভর্তি করে জমা দিতে পারলেই কেল্লাফতে।

আরো পড়ুন :  LIC গ্রাহকদের জন্য সুখবর, লকডাউনে মিলছে ৪টি বিশেষ সুবিধা

তবে গ্রাহকরা যদি এই সুবিধা নিতে চান তাহলে সেক্ষেত্রে তাদের কয়েকটি বিষয় মাথায় রাখতে হবে। প্রথমত, গ্রাহকদের পিএফ অ্যাকাউন্ট হতে হবে কমপক্ষে দুই বছরের পুরনো। দ্বিতীয়ত, কিস্তির জন্য যে পরিমাণ টাকা দিতে হবে তা অবশ্যই ভাবে গ্রাহকদের অ্যাকাউন্টে থাকতে হবে। এই দুটো বিষয় যদি ঠিকঠাক থাকে তাহলে গ্রাহককে জীবন বিমার পলিসি নম্বর, বিমাকৃত রাশি, কিস্তির পরিমাণ এবং জীবন বিমা নিগমের কোন শাখা থেকে বিমা কেনা হবে বা হয়েছে তার বিবরণ জমা দিতে হবে ১৪ নম্বর ফর্মের সাথে। এই সমস্ত নথি ঠিকঠাক থাকলেই ইপিএফও’র তরফ থেকে বিমার কিস্তি দিয়ে দেওয়া হবে।

আরো পড়ুন :  ছোট ব্যাবসায়ীদের জন্য বড়সড় সুখবর আনতে চলেছে JIO, জানুন কীভাবে লাভবান হবেন

Related Articles

Back to top button