নিউজরাজ্য

ওরা অত্যাচারী, বাংলার মানুষ ওদের ভোট দেবেনা: জোড়াফুল শিবিরের উদ্দেশ্যে দিলীপ 

Advertisement

বাংলা এখন হয়ে উঠেছে জঙ্গি এবং রোহিঙ্গাদের আঁতুড়ঘর। এখন তো বঙ্গের অবস্থা কাশ্মীরের থেকেও খারাপ। আজ এমনটাই বলতে শোনা গেল রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষকে। উত্তর ২৪ পরগনার টবিন রোডে চায় পে চর্চাতে পুলিশ প্রশাসনের উদ্দেশ্যে আবার তীর ছুঁড়তে দেখা যায় রাজ্য বিজেপি সভাপতিকে।

এইদিন তিনি বলেন,” উগ্রপন্থীরা তো অন্য রাজ্য থেকে ধাওয়া খেয়ে এসে এখানে আশ্রয় নেয়। পশ্চিমবঙ্গ তাদের আঁতুড়ঘর। তাদের আশ্রয়স্থল। এখন তো এখানকার অবস্থা কাশ্মীরের থেকেও খারাপ। সম্প্রতি কুচবিহারে ধরা পড়েছে ৬জন উগ্রপন্থী। উত্তরবঙ্গে আমার ওপর হামলা হয়েছে। তা করেছে বহিরাগতরা।

এইদিন তিনি আরও বলেন,” আমার ওপর যারা হামলা করেছে তাদের দেখলে খুব সহজে বোঝা যাবে যে তারা ভারতীয় নয়, সব রোহিঙ্গা। এরাই ভোট করে তৃণমূলকে। এরাই ওদেরকে জেতায়। এই দুষ্কৃতীরা কেবল এদেশে নয়, অত্যাচার করছে বাংলাদেশেও। রাজনীতি করা হচ্ছে দেশের সুরক্ষা নিয়ে ও। তাই তো সরকার পরিবর্তনের সময় এসেছে।”

রাজ্য বিজেপি সভাপতির বক্তব্য,”আমার নাম তো আবার তাদের হিটলিস্টের এক নং এ আছে। তবে ভয় পাওয়া যাবেনা। এই সরকার যদি চলে যায়, তবে অনেকটা শান্তি ফিরবে বাংলায়।”

কলকাতার মেয়র তথা ফিরহাদ হাকিমের প্রসঙ্গ টেনে এইদিন দিলীপবাবু বলেন,”তৃণমূলের কিছু নেতা আমাকে নিয়ে কিছু কু কথা বলছে। তারা তো নিজেই হেসে বসে আছেন। পিছনের দরজা দিয়ে যান তার পর ক্ষমতায় বসেন তারা। আগামী মে মাসেই শেষ হয়ে যাবে তাদের ক্ষমতা।”

তবে কেবল বিপক্ষের উদ্দেশ্যেই নয়, নিজের দলের সমর্থকদের উদ্দেশ্যে ও বলেন,”মে মাসে বঙ্গে ক্ষমতায় আসতে চলেছে বিজেপি। সবাই যদি একজোট হয়ে লড়লেও বিজেপিকে হারাতে পারবেনা। বাংলায় ক্ষমতা এইবার দখল করবে বিজেপি ই।”

এরপর ই তিনি বলেন,” ওরা অত্যাচারী, বাংলার মানুষ আর ভোট দেবেনা ওদের। বঙ্গ বিজেপি আসবে পদে। উন্নয়ন করবে, বিকাশ করবে। পুলিশ দিয়ে তো আর ক্ষমতায় বসে থাকা সম্ভব না।”

Tags

Related Articles

Back to top button