নিউজপলিটিক্সরাজ্য

বাংলায় থেকে মনে হয় ইরান, ইরাক কিংবা আফগানিস্থানে আছি, রাজ্যে অরাজকতা প্রসঙ্গে মন্তব্য দিলীপের

Advertisement

আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের আগে তৃণমূল বিজেপি দ্বন্দ্ব এখন চরমে। আজ সকালে বরানগরের এক চা চক্রে উপস্থিত ছিলেন বাংলা বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সেখানেই তিনি আবার নাম না নিয়ে তৃণমূলের বিরুদ্ধে কটাক্ষ করেছেন। তিনি বিদ্রুপ করে বলেছেন, “যারা নিজেরা শান্তিতে থাকতে পারে না তারা কি করে সাধারণ মানুষকে শান্তি দেবে।” তিনি আরো বলেছেন যারা এতদিন ধরে দলের সাথে যুক্ত আছে তারাই যেন দলে থেকে দমবন্ধ হয়ে যাচ্ছে। এ ব্যাপারে তিনি বিদ্রুপাত্মক হয়ে বলেন হয়ে বলেন, “অক্সিজেন সিলিন্ডার লাগবে নাকি?”

দিলীপ ঘোষ সেদিনকার চা-চক্রে রাজ্যের অরাজকতার কথা উল্লেখ করে বলেছেন এখন এখানে কিছু করতে গেলেই শাসকদলের অসুবিধা হয়। তিনি কটাক্ষ করে বলেন, বাংলায় তো কারোর নিজের মত ভোট দেয়ার অধিকার নেই। এমনকি বিপক্ষ দলের নির্বাচনের দাঁড়ানো বা ভোটের আগে সভা-সমিতি করার অধিকার নেই। তাতেও শাসকদলের অসুবিধা হয়।

এছাড়াও তিনি বলেছেন যে এক দুশো লোককে নিয়ে চা-চক্র করল তার ওপর আক্রমণ করে এই দল। এসে ডায়াস ভেঙে দেয়। এর সাথে তিনি আলিপুরদুয়ারে ঘটে যাওয়া তার কনভয়ের ওপর ইটের হামলার প্রসঙ্গ টেনে বলেছেন যে কোন সভাতে অংশগ্রহণ করতে যাওয়ার অধিকার ও দিচ্ছেন আজকাল শাসকদল। রাস্তার মাঝে কাজে ব্যাঘাত এর জন্য আক্রমণ করছে। তিনি বিদ্রুপ করে বলেছেন, “মাঝে মাঝে তো মনে হয় ইরাক, সিরিয়া কিংবা আফগানিস্তানের চলে এসেছি।”

অন্যদিকে তিনি কাশ্মীর প্রসঙ্গ টেনে বলেন যে ৩০-৩৫ বছর ধরে অশান্ত ছিল কাশ্মীর। কিন্তু মোদি সরকার এসে সব ঠাণ্ডা করে দিয়েছে। তিনি আরো বলেছেন যে এই অরাজকতা ২০২১ এর মে মাস অব্দি চলবে। তারপর বিধানসভা ভোটে বিজেপি সরকার ক্ষমতায় এলে রাজ্যে আর অরাজকতা হতে দেবে না। তিনি তৃণমূলের নাম না করে বিদ্রুপ করে বলেছেন, “এবার বাড়িটা ভেঙে পড়বে। বাড়ির মালিক তো খুব টেনশনেই আছেন এখন।”

Tags

Related Articles

Back to top button