দেশনিউজ

ব্রিটেনে করোনার নতুন স্ট্রেন এবার ভারতে? আশঙ্কা বিশেষজ্ঞদের

Advertisement

নয়াদিল্লি: করোনা ভাইরাসের নয়া স্ট্রেন নিয়ে বিশ্বকে আতঙ্কিত করে তুলছে ব্রিটেন। যদিও করোনার এই নয়া স্ট্রেনের খবর পেয়েই তড়িঘড়ি ব্রিটেনের সঙ্গে বিমান পরিষেবা বন্ধ করছে ভারত। কিন্তু এই নিষেধাজ্ঞার আগেই ভারতে এসেছেন বহু যাত্রী। যাঁদের মধ্যে ২০ জন করোনা পজিটিভ ধরা পড়েছে। বিজ্ঞানীরা আশঙ্কা করছেন যে এদের মধ্যে অধিকাংশই নয়া স্ট্রেনের বাহক।

এমন পরিস্থিতিতে প্রশ্ন উঠছে যে নতুন ব্রিটিশ করোনার ভাইরাস ভারতে এসেছে কি না?  বিজ্ঞানীদের মতে, এই যাত্রীদের ৫০ শতাংশের মধ্যে নতুন ব্রিটিশ করোনার ভাইরাস থাকতে পারে। ব্রিটেনের ৬০ শতাংশ মানুষ নতুন করোনার ভাইরাস দ্বারা অসুস্থ। ২০ জন যাত্রীর  অর্ধেকের মধ্যে নতুন করোনা ভাইরাস থাকতে পারে, এমনটাই মনে করা হচ্ছে। তাদের নমুনাগুলির জিনোম সিকোয়েন্সিং প্রকাশ করবে যে ভারতে কোনও নতুন করোনার ভাইরাস এসেছে কি না।

হায়দরাবাদ সিসিএমবির পরিচালক ডাঃ রাকেশ মিশ্র জানিয়েছেন, আগামীকাল থেকে ২০ জনকে ইতিবাচক অবস্থায় পাওয়া গেছে। সুতরাং এটি অনুসারে এই সম্ভাবনা রয়েছে যে এই ২০ জনের মধ্যে অর্ধেকেরও বেশি লোক এই ভাইরাসের বাহক।

বিজ্ঞানীদের এই আশঙ্কাই চিন্তা বাড়াচ্ছে দেশে। সংক্রামিতদের এখন পরীক্ষা নীরিক্ষা চলছে। গত দু’সপ্তাহে ব্রিটেন থেকে দেশে আসা যাত্রীদেরও পরীক্ষা করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। দেশের বিভিন্ন রাজ্য সরকারও এই স্ট্রেন রুখতে কড়া পদক্ষেপ জারি করেছে। উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ নির্দেশ দিয়েছেন ২৫ নভেম্বর থেকে 8 ডিসেম্বর পর্যন্ত ব্রিটেন থেকে আগতদের জন্য করোনার পরীক্ষা হবে।

টিকাদান শুরুর আগে এই সতর্কতা বিশেষভাবে গুরুত্বপূর্ণ। ব্রিটেনে নতুন করোনার ভাইরাস শিশুদেরও শরীরে বাসা বেঁধেছে। সেই আবহে প্রাথমিকভাবে করোনা টিকাকরণে শিশুদেরকেও দেওয়া হবে বলেই জানান হয়েছে।

Tags

Related Articles

Back to top button