নিউজরাজ্য

ফের বদলানো হলো বিধি-নিষেধের নিয়ম, সিনেমা হল খোলার ব্যাপারে বড় সিদ্ধান্ত নিলো রাজ্য সরকার

সন্ধ্যার পরে নতুন বিজ্ঞপ্তি পেশ করে নবান্নের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এবার থেকে নেওয়া হল মাল্টিপ্লেক্স খোলা যাবে পশ্চিমবঙ্গে

একটি বিজ্ঞপ্তি আসার পরেই আরো একটি বিজ্ঞপ্তি। এবারে নতুন করে করোনাভাইরাস এর বিধি নিষেধ জারি করে দিল রাজ্য সরকার। আগামী স্বাধীনতা দিবস পর্যন্ত এই বিধি নিষেধ জারি থাকবে বলে জানিয়েছে রাজ্য সরকার। বৃহস্পতিবার ঘোষণা করা হয়েছে এই নতুন বিধি নিষেধ। কিন্তু সেই সময়ে তেমন কোনো ছাড়পত্র দেওয়া হয়নি। বিশেষ করে বলতে গেলে সিনেমা হল এর ক্ষেত্রে কোন রকম ছাড়পত্র মেলেনি। কিন্তু সন্ধ্যার পরে আবার একটি নতুন নির্দেশিকায় স্বস্তি পেয়েছেন সিনেমাহলের মালিকরা এবং কলাকুশলীরা। জানা যাচ্ছে নতুন বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে নবান্ন তরফ থেকে জানানো হয়েছে এবার থেকে সিনেমা হল এবং মাল্টিপ্লেক্স খোলা যাবে পশ্চিমবঙ্গে। তবে ৫০ শতাংশ দর্শক প্রবেশ করতে পারবে এই মুহূর্তে।

সিনেমা হল এবং মাল্টিপ্লেক্স খোলার উপরে এই ছাড়পত্র দেওয়ার পরে নবান্নের নির্দেশিকা বিনোদন জগৎ এর ক্ষেত্রে কিছুটা অক্সিজেনের সঞ্চার করল বলা যেতে পারে। নির্দেশিকা এখনো পর্যন্ত লোকাল ট্রেন এর ব্যাপারে কোনরকম ছাড়পত্র দেওয়া হয়নি। নবান্নের তরফে জানানো হয়েছে আগামী ৩১ জুলাই থেকে অর্ধেক দর্শক নিয়ে খোলা যাবে সিনেমা হলে এবং মাল্টিপ্লেক্স। পাশাপাশি করোনাভাইরাস বিধি পালন বাধ্যতামূলক করে দেওয়া হয়েছে নবান্নের পক্ষ।

বৃহস্পতিবার একটি নির্দেশিকা জারি করে রাজ্য সরকারের তরফে জানানো হয় আগামী স্বাধীনতা দিবস পর্যন্ত নতুন করে বিধি-নিষেধ জারি থাকবে। প্রথমে জানানো হয়েছিল এবার থেকে কোনো রুদ্ধদ্বার জায়গায় যেকোনো রকম সরকারি অনুষ্ঠান করা যাবে। তবে অবশ্যই দর্শক সংখ্যা হতে হবে অর্ধেক এবং কোনরকম বিশৃঙ্খলা বরদাশ্ত করা হবে না। তার পাশাপাশি নবান্নের তরফে জানানো হয়েছিল, করোনাভাইরাস বিধি সম্পূর্ণরূপে মানতে হবে।

পাশাপাশি, নাইট কারফিউর উপরে বিশ্বাস করে নজর দিতে শুরু করেছে রাজ্য সরকার।জানা যাচ্ছে, এবার থেকে যারা নাইট কারফিউ ভাঙবে তাদের বিরুদ্ধে করার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে। গত মঙ্গলবার থেকেই এই নতুন নিয়ম কার্যকর হয়েছে। এছাড়াও, করোনাভাইরাস নিয়ে বর্তমানে অত্যন্ত চিন্তিত রাজ্য সরকার। কিছু কিছু জায়গায় এখনও পর্যন্ত অনেকেই করোনাভাইরাস বিধি মানছেন না। এই কারণেই মূলত ট্রেন চালানোর সিদ্ধান্ত এখনো পর্যন্ত নেওয়া হয়নি বলে জানাচ্ছি নবান্ন। রেলের তরফ থেকে আর্জি জানানো হলেও লোকাল ট্রেন চালানোর সিদ্ধান্ত যে এখনো পর্যন্ত বিশবাঁও জলে তার বলার অপেক্ষা রাখে না।

Related Articles

Back to top button