নিউজরাজ্য

ভুয়ো আইনজীবী পরিচয় দিয়ে, ৬ লক্ষ টাকা হাতানোর অভিযোগে গ্রেফতার বিজেপি নেত্রী

গ্রেপ্তারি প্রসঙ্গে কি বললেন রাজ্য বিজেপি শীর্ষ কর্তারা?



এবারে আইনজীবী পরিচয় দিয়ে প্রতারণা করার অভিযোগ উঠল বিজেপি নেত্রীর বিরুদ্ধে। নাজিয়া এলাহী খান নামে একজন মহিলাদের এই মর্মে গ্রেফতার করেছে গিরিশ পার্ক থানার পুলিশ। জানা যাচ্ছে বিজেপির সংখ্যালঘু সেল এর সদস্য তিনি। দীর্ঘদিন ধরে আইনজীবী হিসেবে পরিচয় দিয়ে প্রতারণা করেছেন ওই বিজেপি নেত্রী। পুলিশ সূত্রের খবর, এখনো পর্যন্ত ধৃতের আইনজীবী হওয়ার কোনো রকম প্রমাণ মেলেনি নাজিয়ার কাছ থেকে।

নাজিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে, বাংলা মিটিয়ে দেওয়ার নাম করে একাধিক ব্যক্তির কাছ থেকে টাকা তুলে তাদেরকে প্রতারণা করেছেন তিনি। ইতিমধ্যেই বাগুইআটি থানায় তার নামে একাধিক অভিযোগ জমা পড়েছিল। সঞ্জীব আগারওয়াল নামক একজন ব্যক্তি এই অভিযোগ দায়ের করেছিলেন। তিনি দাবি করেছেন, তার বিবাহ বিচ্ছেদের মামলা মিটিয়ে দেওয়ার নাম করে নাজিয়া এলাহী খান ছয় লক্ষ টাকা নিয়েছিলেন তার কাছ থেকে।

তার পাশাপাশি ২০২০ সালে গিরিশ পার্ক থানায় অভিযোগ দায়ের করেন ওই একই ব্যক্তি। গিরিশ প্রার্থনায় অভিযোগ দায়ের করার পরে ওই বিজেপি নেত্রীর বিরুদ্ধে তদন্তে নামে আইনজীবীদের বার কাউন্সিল। বার এসোসিয়েশনের চিঠি অনুযায়ী সেখান থেকে পুলিশ সম্প্রতি নিশ্চিত হয় যে, নাজিয়া এলাহী খান কোনভাবেই একজন আইনজীবী নন বরং তিনি শুধুমাত্র একজন বিজেপি নেত্রী।

যদিও, নাজিয়ার বিরুদ্ধে এর আগেও একাধিক অভিযোগ রয়েছে। পুলিশে অভিযোগ দায়ের হবার পরে দিল্লির সহ বিভিন্ন জায়গায় পালিয়ে বেড়াচ্ছেন তিনি। তবে বৃহস্পতিবার সকালে গিরিশ পার্ক থানার পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, নাজিয়া এলাহী খান তিন তালাক মামলার সঙ্গে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত ছিলেন। গ্রেপ্তারির পর তার বিরুদ্ধে চার্জশিট ফাইল করার জন্য তদন্তে নেমেছে পুলিশ। যদিও, নাজিয়ার গ্রেফতারের পর মুখে কুলুপ এঁটেছেন রাজ্য বিজেপি শীর্ষ নেতারা।

Related Articles

Back to top button