নিউজপলিটিক্সরাজ্য

‘নন্দীগ্রামে হারবেন বুঝে বারাণসীতে নির্বাচন লড়তে যাচ্ছেন মমতা’, কটাক্ষ প্রধানমন্ত্রীর

নরেন্দ্র মোদী আজ বিকেলে সোনারপুরে একটি জনসভায় উপস্থিত হয়েছিলেন

×
Advertisement

একুশে বাংলা বিধানসভা নির্বাচন জোরকদমে শুরু হয়ে গিয়েছে। ইতিমধ্যেই প্রথম দুই দফা নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। বাকি এখনও ৬ দফা নির্বাচন। আর তাতে জয়লাভের জন্য প্রচারে ঝড় তুলতে বাংলায় এসেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি আজ অর্থাৎ শনিবার বিকেলের দিকে সোনারপুরে একটি জনসভায় উপস্থিত হয়েছিলেন। জনসভা থেকে নরেন্দ্র মোদি শাসকদল ও কেবল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর বিরুদ্ধে একাধিক ইস্যুতে গলায় সুর তুলেছেন। এছাড়াও মমতার বারাণসীতে লোকসভা নির্বাচনী লড়াইয়ে অংশগ্রহণ করা নিয়ে তীব্র বিদ্রুপ করেছেন।

Advertisement

প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদী সোনারপুর থেকে মমতাকে বিদ্রূপ করে বলেছেন, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বুঝে গিয়েছেন যে তিনি নন্দীগ্রামের জিতবেন না। তারপর তিনি ভেবেছিলেন অন্য কেন্দ্র থেকে দাঁড়াবেন। কিন্তু দলের লোকজন বুঝিয়েছে যে অন্য কেন্দ্র থেকেও তিনি হারবেন। দুটি কেন্দ্র থেকে হারলে আর তিনি মুখ্যমন্ত্রী হতে পারবেন না। তাই এখন বারাণসীতে নির্বাচন লড়ার কথা বলছেন।” এছাড়াও তিনি কটাক্ষ করে বলেছেন, “মমতা বুঝে গেছেন যে তিনি বাংলায় বিধানসভা নির্বাচনে হেরে গেছেন। তাই এখন বারাণসীতে নির্বাচন লড়ার কথা বলছেন।উত্তরপ্রদেশ বা বারাণসীর মানুষকে এত ঘেন্না করবেন না। বহিরাগত বলবেন না। ওখানকার মানুষের মন অনেক বড়। আপনাকে খুব স্নেহ করবে। এতটা স্নেহ করবে যে ওখানেই রেখে দেবে। দিল্লি অবধি যেতে দেবে না।”

এখানে থেমে যাননি প্রধানমন্ত্রী। তিনি আরো বলেছেন যে মমতা তো জয় শ্রীরাম শুনলে রেগে যায়। বারানসীতে গিয়ে প্রতিমুহূর্তে হর হর মহাদেব শুনতে হবে। তার তো তা পছন্দ হবে না। তাহলে নির্বাচনে লড়বেন কি করে। এছাড়াও তিনি বলেছেন, “জানেন কেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বারানসী বেছে নিয়েছেন। আসলে আমি হলদিয়া থেকে বারানসি অব্দি যে জলপথ তৈরি করে দিয়েছি তা দিদির খুব পছন্দ হয়েছে।”

Advertisement

Related Articles

Back to top button