টলিউডবাংলা সিরিয়ালবিনোদন

মিঠাইকে পরাজিত করতে ময়দানে আসছে মানালীর ধূলোকণা



নকশিকাথার পর ফের লীনা গঙ্গোপাধ্যায়ের হাত ধরে কামব্যাক করছেন মানালী দে। দীর্ঘ ব্রেকের পর স্টার জলসার নতুন গল্প ধূলোকণাতে  অভিনয় করছেন  মানালী। এই খবর অনেক দিন ধরেই টেলিভিশনে ঘোরা ফেরা করছিল। লকডাউনের আগেই নতুন প্রমো লঞ্চ হয়ে গিয়েছিল। প্রথম প্রমোতেই দেখানো হয়, বাড়িতে এসেছে নতুন গাড়ি, অথচ গ্যারেজ না থাকায় উঠোনের মধ্যেই মশারি টাঙিয়ে আগলে রাখা হচ্ছে নতুন অতিথিকে। সেই নিয়ে বাড়িতেই হইহই কাণ্ড, খোঁজ চলছে নতুন ড্রাইভারেরও। এরপরই গল্পে এন্ট্রি নেয় লাল ওরফে ইন্দ্রাশিষ।

প্রথম দেখাতে মানালী আর ইন্দ্রাশিষের প্রেম হলনা। বরং শুরু হয়ে ঝগড়া। মানালী প্রথমে বাড়ির নতুন ড্রাইভারকে বলে দেত গান গাক আর নেত্য করুক’, সেই নিয়ে মাথ্যবাথ্যা নেই মানালির কড়া ভাষায় হুকুম করে সে বলে প্রতিদিন গাড়ি ধুয়ে-মুছে পরিষ্কার করতে হবে। ইন্দ্রাশিষ ও বলে ওঠে বাড়ির কাজের লোকের সাথে মুখ লাগাতে চায়না। তখন সকলে বলে ওঠে সে বাড়ির কাজের লোক নয় সে হচ্ছে বাড়ির ম্যানেজার। সেই যাই হোক তু তু মে মে করে গল্পের ঝগড়ার প্রেক্ষাপটেই শুরু হল মিষ্টি প্রেমের গল্প। এখন এটাই দেখার যৌথ পরিবারের প্রেক্ষাপটে এই টক-ঝাল-মিষ্টি সম্পর্ক কীভাবে মধুর হবে ‘ধূলোকণা’তে। এই ধারাবাহিকে ফ্রেশ জুটি হিসেবে থাকছে মানালী আর ইন্দ্রাশিষ। এছাড়া বাদশা মৈত্র, ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়, শঙ্কর চক্রবর্তী, ময়না মুখোপাধ্যায়, মৈনাক বন্দ্যোপাধ্যায়, অস্মি ঘোষের মতো কলাকুশলী।

প্রথম প্রমোই বেশ হিট হয়ে যায়। তবে করোনা আর লকডাউনের পর ফের কোনোভাবে ধারাবাহিকের শ্যুটিং নতুন করে শুরুই করা যাচ্ছিলনা। তবে সব যট কাটিয়ে ধূলোকণার শ্যুটিং শুরু হয়ে গিয়েছে। কিন্তু প্রশ্ন ছিল স্টার জলসার কোন স্লটে আসবে এই ধারাবাহিক। স্টার জলসার দর্শকদের জন্য সুখবর। ১৯ শে জুলাই থেকে স্টার জলসাতে রাত ৮টা থেকে শুরু হচ্ছে এই নতুন ধারাবাহিক। এতদিন রাত ৮টায় বরণ ধারাবাহিক দেখানো হত। না বরণ শেষ হচ্ছেনা এখনই এই ধারাবাহিক ১৯ শে জুলাই থেকে সোম থেকে রবি বিকেল ৫ঃ৩০ টাতে দেখানো হবে।

বিগত কয়েক দিন ধরেই টিআরপি তালিকায় জি বাংলার ধারাবাহিক থেকে অনেকটাই পিছিয়ে রয়েছে স্টার জলসার একাধিক ধারাবাহিক। খড়কুটো স্টার জলসার চ্যানেল টপার থাকলেও টিআরপির জায়গাতে কোনোভাবে এক নম্বরে জায়গা করতে পারছেনা। অন্যদিকে ২০ সপ্তাহের বেশি দিন ধরে জি বাংলার মিঠাই টিআরপির শীর্ষেই রয়েছে। কোনোভাবে টলানো যাচ্ছেনা এই ধারাবাহিককে। তাই স্টার জলসা রাত ৮ টার সময় মানালী তবে কি মিঠাইয়ের সৌমিতৃষাকে টিআরপির এই খেলাতে হারাতে পারবে? মিঠাই আর উচ্ছেবাবুর মতো কি ধূলোকণার বাড়ির ম্যানেজার আর ড্রাইভারের প্রেম জমবে? তা সময় বলবে। আপাতত মানালীর অনুরাগীরা রোজ পর্দায় প্রিয় অভিনেত্রীকে দেখার আনন্দে উচ্ছ্বসিত।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Star Jalsha (@starjalsha)

Related Articles

Back to top button