নিউজরাজ্য

“তার চলে যাওয়ার মধ্যে দিয়ে চলে গেল একটি ইতিহাস”, সৌমিত্র স্মরণে মমতা

Advertisement

আজ দুপুর ১২.১৫ নাগাদ শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। প্রায় ৩০ মিনিটের মধ্যে ভিড় হয়ে যায় হাসপাতালের সামনে। নামে অগণিত সৌমিত্র অনুগামীর ঢল। তার এভাবে চলে যাওয়াকে চলচ্চিত্র জগত তথা শিল্প জগতের এক যুগের অবসান বলে মনে করছেন অনেকেই। বেলা ১২.৫২ নাগাদ বেলভিউ হাসপাতালে পৌঁছান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি প্রথমেই কথা বলেন প্রয়াত অভিনেতার মেয়ে পৌলমীর সাথে।

তারপরেই সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন,”আজ শিল্প জগতের এক যুগের অবসান বলা চলে। সারা বিশ্ব চলচ্চিত্র জগত এক মহান প্রতিভাকে হারাল। আমার তার সাথে শেষ কথা হয় যখন তিনি করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন। তখন আমি ছিলাম মেদিনীপুরে। করোনা রিপোর্ট কিন্তু নেগেটিভ হয়ে গিয়েছিল তার। কিন্তু সমস্যা ছিল বেশ কিছু। ডাক্তার রা চেষ্টা করেছেন। প্রত্যেকে নিজেদের সাধ্যমতো চেষ্টা করেছেন। তবু ধরে রাখা গেলনা তাকে। যেখানে তিনি পৌঁছেছিলেন সেখানে যেতে অনেক সংগ্রাম লাগে। লাগে অনেক অধ্যাবাসয়। সৌমিত্রদার এই চলে যাওয়ার মধ্যে দিয়ে আমরা হারালাম এক চির ইতিহাসকে।”

অন্যদিকে অভিনেতাকে টুইটের মাধ্যমে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের। অবশেষে দুপুর ২ টোর সময় হাসপাতাল থেকে বের করা হয় অভিনেতার দেহ। বাড়ির দিকে রওনা দেয় শববাহী গাড়ি। দুপুর ২ টো ২১ নাগাদ গলফ গ্রিনের বাড়িতে পৌঁছায় তার দেহ।

মুখ্যমন্ত্রীর সাথে সাক্ষাতের পর অভিনেতার মেয়ে বলেন,বাড়িতেই তাকে জানানো হবে শেষ শ্রদ্ধা। সেখানেই তার দেহ রাখা হবে ২ ঘণ্টার জন্য। অন্যদিকে চিকিৎসক অরিন্দম করকে ধন্যবাদ জানিয়ে অভিনেতার মেয়ে বলেন,”তার মতো চিকিৎসক আমাদের আরও প্রয়োজন। সবাইকে বলছি দুঃখ পাবেন না। কষ্ট পাবেন না। হয়তো আজ উনি হেরে গেলেন কিন্তু চিরকাল আমাদের মাঝে থেকে যাবেন তিনি।”

Tags

Related Articles

Back to top button