কলকাতানিউজ

মেয়েদের জন্য কলকাতা নিরাপদ, জানালো এনআরসিবি

Advertisement

সারা দেশ এখন হাথরস কান্ড নিয়ে চিন্তিত। উত্তরপ্রদেশের দলিত কন্যার ধর্ষণের পড়ে নড়েচড়ে বসেছে মানুষ থেকে প্রশাসন সকলেই। কিন্তু এসবের মাঝেই কলকাতা মেয়েদের জন্য নিরাপদ বলে জানাল ‘ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ড ব্যুরো’ (এনসিআরবি)।  এনসিআরবি যে রিপোর্ট প্রকাশ করেছে, তাতে দেখা যাচ্ছে ২০১৯ সালে শহরে মোট ১৪টি যৌন আক্রমণের ঘটনা ঘটেছে।

ভারতের উনিশটি বড় শহরের মধ্যে মেয়েদের ওপর যৌন নির্যাতনের সংখ্যা কলকাতায় সব চেয়ে কম। কিছু দিন আগেই ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ড ব্যুরোর তাদের সমীক্ষার রিপোর্ট সামনে আনতেই শুরু হয় চাঞ্চল্য৷ ধর্ষণ ছাড়াও পণের জন্য অত্যাচার, মহিলা পাচারের মত ভুরি ভুরি ঘটনা ঘটছে প্রায় প্রতিদিনই। প্রতি ২ থেকে ৩ দিনে মহিলাদের ওপর হয় অ্যাসিড আক্রমণ৷

প্রতি ১ ঘণ্টা ১৩ মিনিটে পণের জন্য অত্যাচারে মৃত্যু হয় মহিলাদের৷ প্রতি ১ দিন ৬ ঘণ্টায় হয় মহিলাদের গণধর্ষণ ও খুন৷ প্রতি ৪ ঘণ্টা পাচার হন মহিলারা৷ এমনকি প্রতি ৪ মিনিটে দেশে স্বামী ও শ্বশুড়বাড়ির লোকেরদের হাতে মার খান মহিলারা৷ প্রতি ১৬ মিনিটে ধর্ষণের শিকার হন মহিলারা৷ কিন্তু সেই জায়গায় দাঁড়িয়ে এ রাজ্য অনেকটাই নিরাপদ মেয়েদের জন্য। গোটা দেশের তুলনায় কলকাতার পরিস্থিতি অনেকটাই স্বস্তিজনক।

প্রসঙ্গত, গত ১৪ সেপ্টেম্বর উত্তর প্রদেশের হাতরসে ওই যুবতীকে ধর্ষণ করে খুন করা হয়। ঘটনার সপ্তাহ দুই পর মঙ্গলবার ভোরে দিল্লির সফদরজং হাসপাতালে যুবতীর মৃত্যু হয়৷ এর পরেই সারা ভারত জুড়ে তীব্র প্রতিক্রিয়া শুরু হয়৷ নির্যাতিতার মৃত্যুর পরিবারের আপত্তি অগ্রাহ্য করেই এ দিন ভোরে ওই যুবতীর দেহ সৎকার করে দেয় উত্তরপ্রদেশ পুলিশ৷ এরপরে বিভিন্ন ক্ষেত্রে মেয়েদের নিরাপত্তা নিয়ে নানা ক্ষেত্রে নানা প্রশ্ন উঠতে শুরু করে।

Tags

Related Articles

Back to top button