দেশনিউজ

লাগামছাড়া করোনা সংক্রমন, আবারো লকডাউনের পথে হাঁটছে ভারতের এই রাজ্য

কেরলে দুই দিনের জন্য লকডাউন জারি করে দিয়েছে কেরল সরকার

দক্ষিণ ভারতের রাজ্য কেরলে বর্তমানে সবথেকে বেশি করোনা আক্রমণ হচ্ছে পুরো ভারতের মধ্যে। গতকাল কেরলে রেকর্ড পরিমাণ করোনা কেস রিপোর্ট করা হয়েছে। দৈনিক ২২,০০০ করোনাভাইরাস কেস নিয়ে বর্তমানে রাজ্যের তালিকায় সর্বশীর্ষে আছে কেরালা। তাই রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি সামাল দেবার জন্য সারা রাজ্যে লকডাউন জারি করল কেরালা সরকার। কেরলে ক্ষমতাসীন পিনরাই বিজয়নের বাম সরকারের তরফে আজকে এই ঘোষণা করে দেওয়া হলো। কেরল সরকারের তরফ থেকে জানানো হয়েছে সপ্তাহের শেষে অর্থাৎ উইকেন্ডে এই লকডাউন জারি করা হবে। ৩১ জুলাই ২০২১ এবং ১ আগস্ট এই লকডাউন জারি হবে সারা কেরলে।

কেরলের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে অত্যন্ত চিন্তিত কেন্দ্রীয় সরকার। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী মন্সুখ মান্ডব্য জানিয়েছেন, ” কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে একটি ৬ সদস্যের টিম পাঠানো হচ্ছে কেরালায়। এই টিমের প্রধান হবেন ন্যাশনাল সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোলের ডিরেক্টার। বর্তমানে ভারতের মধ্যে সবথেকে বেশি করোনাভাইরাস কেস রিপোর্ট করা হচ্ছে কেরালা থেকে। এই কারণেই কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে এই টিম পাঠানো হচ্ছে। এই টিম সেই রাজ্যের সরকারকে করোনাভাইরাস মোকাবিলায় সাহায্য করবে।”

রিপোর্ট অনুযায়ী জানা যাচ্ছে বর্তমানে কেরলে সবথেকে বেশি সংখ্যায় করোনা কেস রিপোর্ট হচ্ছে মালাপ্পুরাম, থ্রিসার, কোঝিকোড়, এর্নাকুলাম, পালাক্কাড়, কোল্লাম, আলাপ্পুঝা, কান্নুর, তিরুবনন্তপুরম, এবং কোট্টায়াম থেকে।

ইন্ডিয়ান কাউন্সিল ফর মেডিকেল রিসার্চ আইসিএমআর এর একটি রিপোর্ট থেকে জানা যাচ্ছে, বর্তমানে দেশের ১১টি রাজ্যের দুই-তৃতীয়াংশ মানুষের দেহে করোনা ভাইরাসের অ্যান্টিবডি মিলেছে, অর্থাৎ তারা করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন। বর্তমানে সেই তালিকার শীর্ষে অবস্থান করছে মধ্যপ্রদেশ।

Related Articles

Back to top button