দেশনিউজ

ইনজেকশন নয়, করোনা ভ্যাকসিন এবার ক্যাপসুলে, নয়া আবিষ্কারে চমক ভারতীয় সংস্থার

ভারতীয় সংস্থা "প্রেমাস বায়োটেক", মার্কিন এক কোম্পানির সাথে যৌথভাবে ওরাল ক্যাপসুল করোনা ভ্যাকসিন বানিয়েছে

×
Advertisement

করোনা ভাইরাস প্যানডেমিক গত বছর থেকে বিশ্বজুড়ে সকল মানুষের জীবন দুর্বিষহ করে তুলেছে। কিন্তু নতুন বছরের শুরুতে আশার আলো হিসাবে ভারত তথা গোটা বিশ্বে একাধিক করোনা ভ্যাকসিন আবিষ্কৃত হয়েছে। এখন গোটা বিশ্ব জুড়ে চলছে ভ্যাকসিনেশন প্রক্রিয়া। তবে এরইমধ্যে এক ভারতীয় কোম্পানি দাবি করেছে যে তাদের করোনা ভ্যাকসিন আর ইনজেকশনের মাধ্যমে নিতে হবে না। সাধারণ ক্যাপসুলের মত গিলে খাওয়া যাবে। এটি আসলে ভারতীয় এক সংস্থা, মার্কিন এক সংস্থার সাথে যৌথভাবে করেছে। যদি এই ক্যাপসুল করোনার বিরুদ্ধে ১০০ শতাংশ কার্যকর হয় তাহলে চিকিৎসাবিজ্ঞানে এই কোম্পানির নাম স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে।

Advertisement

ভারতীয় কোম্পানি “প্রেমাস বায়োটেক” ও মার্কিন কোম্পানি “ওরামেড ফার্মাসিউটিক্যাল” যৌথভাবে করোনা ভাইরাস প্রতিষেধক ক্যাপসুল তৈরি করেছে। তারা তাদের ওরাল টিকার নাম রেখেছে ‘ওরাভ্যাক্স কোভিড-১৯’। দুই কোম্পানির তরফ এ দাবি করা হয়েছে যে তাদের ক্যাপসুল টিকা একটি ইনজেকশন টিকার মতই কার্যকর। ইতিমধ্যেই পশু পাখির মধ্যে এই টিকা পরীক্ষা করে সাফল্য পাওয়া গেছে। ইনজেকশন টিকার মত এই টিকা নয়। মাত্র একটা ডোজ নিলেই কাজ করবে এই টিকা। এই ক্যাপসুল মানুষের শ্বাসনালী বা খাদ্যনালী দিয়ে যাওয়ার সময় করোনা ভাইরাস নিপাত করবে।

প্রেমাস বায়োটেক কোম্পানি দীর্ঘদিন ধরেই বিভিন্ন অসুখের টিকা প্রস্তুত করে। অন্যদিকে, ওরামেড ফার্মাসিউটিক্যাল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রোটিন জাতীয় খাবার তৈরিতে শীর্ষস্থানে আছে। এই দুই কোম্পানির দীর্ঘ অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে তারা এই ওরাল ক্যাপসুল করোনার ভ্যাকসিন, ‘ওরাভ্যাক্স কোভিড-১৯’ বানিয়েছে। ইতিমধ্যেই পশু পাখির উপর প্রয়োগ করার পর এর সুফল দেখা গেছে। চলতি বছরে খুব শীঘ্রই এই ভ্যাকসিনের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল শুরু হবে।

Advertisement

Related Articles

Back to top button