×
Today Trending Newsনিউজরাজ্য

এই মুহূর্তে পরীক্ষা নেওয়া ঝুঁকিপূর্ণ, সম্ভবত বাতিল হচ্ছে মাধ্যমিক পরীক্ষা

জেনে নিন কি বলছে পর্ষদ এবং সংসদ

Advertisement

করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতে এবছর মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা একেবারে দোলাচলে। ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে উৎকণ্ঠা, আদৌ পরীক্ষা হবে নাকি পরীক্ষা হবে না সেই নিয়ে। অনেকেই মনে করছেন, এখন যেহেতু করোনা ভাইরাসের পরিস্থিতি কিছুটা হলেও নিয়ন্ত্রণে এবং আগের থেকে অনেকটা সংক্রমণের হার কমেছে তাই হয়তো পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব হতে পারে। অন্যদিকে আবার অনেকে মনে করছেন, পরীক্ষা পরে, আগে ছাত্র-ছাত্রীদের জীবন। তাই পরীক্ষাটা না নেওয়াই ভালো। যদিও কয়েকদিন আগে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, জুলাইয়ে হবে উচ্চ মাধ্যমিক এবং আগস্টে মাধ্যমিক, তাই কিছুটা হলেও স্বস্তিতে আছেন অভিভাবকরা।

Advertisement

কিন্তু কেন্দ্রীয় সরকারের সিবিএসই দ্বাদশ এবং আইএসসি পরীক্ষা বাতিল করার পরে প্রত্যেকটি রাজ্যের দশম এবং দ্বাদশের পরীক্ষা বাতিল করার দাবি আরো জোরালো হচ্ছে। যদিও এখনও পর্যন্ত রাজ্যের তরফ থেকে কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। রাজ্যের পরীক্ষা কিভাবে করা হবে সেই নিয়ে একটি বিশেষজ্ঞ কমিটি গঠন করা হয়েছে। এই কমিটির তিন সদস্য যা রিপোর্ট দেবেন তার ভিত্তিতে হয়তো পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবে রাজ্য সরকার।

সূত্রের খবর, ইতিমধ্যেই রিপোর্ট তৈরি হয়ে গিয়েছে। সূত্র বলছে, করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতে বিপুল পরিমাণ পড়ুয়াদের পরীক্ষা গ্রহণের সময় তাদের জীবন ঝুঁকির মধ্যে পড়ে যেতে পারে। এই কারণে যদি স্কুলে গিয়ে পরীক্ষা হয় তাহলে কিছুটা হলেও ঝুঁকির পরিমাণ কম, কিন্তু তবুও করোনা সংক্রমনের আশংকা একেবারে উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। তাই এই পরিস্থিতিতে বিশেষজ্ঞ কমিটি তরফে পরীক্ষা বাতিলের সুপারিশ করা হবে বলেই মনে করা হচ্ছে। সেই কারণে ইতিমধ্যেই রাজ্য সরকার বিকল্প পদ্ধতির কথা ভাবা শুরু করে দিয়েছে বলে খবর।

Advertisement

কিভাবে উচ্চ মাধ্যমিক বা মাধ্যমিক পরীক্ষার মার্কশিট তৈরি করা হবে সেই নিয়ে বিস্তর টালবাহানা চলছে। ইতিমধ্যেই মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের প্রজেক্ট এর নম্বর জমা পড়ে গিয়েছে পর্ষদে। তাই নবম শ্রেণীর রেজাল্টের ভিত্তিতে বাকি মার্কশীট তৈরি করা যেতে পারে কিনা সেই নিয়ে চলছে চিন্তা-ভাবনা। কিন্তু সমস্যাটা হলো উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে। তাদের প্রজেক্ট এর নম্বর মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের মত জমা পড়ে গিয়েছে সংসদের কাছে। কিন্তু করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি থাকার কারণে এ বছরে যারা উচ্চমাধ্যমিক দিতে চলেছে, তারা কিন্তু একাদশ শ্রেণির পরীক্ষা দিতে পারেনি।

তাই তাদের ক্ষেত্রে সেরকম ভাবে নম্বরের ডিসট্রিবিউশন করা সম্ভব নয়। দ্বাদশ এর মার্কশিট কখনোই দশম শ্রেণীর রেজাল্ট দেখে তৈরি করা যাবে না, তাই তাদের ক্ষেত্রে বিকল্প পদ্ধতি গ্রহণ করতে হবেই, আর কোনো রাস্তা নেই উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের কাছে। এই অবস্থায় মনে করা হচ্ছে এবারে হোম অ্যাসাইনমেন্ট অর্থাৎ বাড়ি বসে কিছু বিশেষ প্রজেক্টের মাধ্যমে তাদের পরীক্ষা নেওয়া যায় কিনা সেই বিষয়ে আলাপ-আলোচনা করছে উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ। তার পাশাপাশি উঠে আসে অনলাইনে পরীক্ষা নেওয়ার সম্ভাবনা। তবে যাই হোক, যদি পরীক্ষা বাতিল হয়, তাহলে যারা ভাল ছাত্র ছাত্রী আছেন তাদের মধ্যে ক্ষোভ সৃষ্টি হবার সম্ভাবনা আছে।

Related Articles

Back to top button