দেশনিউজ

বাইকে চেপে ব্যস্ত বাজারে গ্রেনেড হামলা, তৎক্ষণাৎ মৃত্যু ২ জনের

গতকাল বৃহস্পতিবার একই জায়গায় গ্রেনেড হামলায় মৃত্যু হয়েছিল এক শিশুর

×
Advertisement

সবে কিছু ঘন্টা আগে অসমের মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে শপথগ্রহণ করেছিলেন হিমন্ত বিশ্বশর্মা। এরমধ্যেই গ্রেনেড হামলা হয়েছে অসমের তিনসুকিয়ায়। এই ঘটনায় প্রাণ গেছে ২ জনের। আজ অর্থাৎ শুক্রবার সকালে তিনসুকিয়ার টিংরাই বাজারে এই ঘটনা ঘটে। পুলিশ কিছুক্ষণের মধ্যেই ঘটনাস্থলে পৌঁছে যায় এবং এলাকার তল্লাশি শুরু করে। প্রাথমিক অনুমান নাশকতার ছক হলেও পুলিশ ঘটনার গভীরে গিয়ে তদন্ত করতে চায়। সকাল-সকাল ভরা বাজারের মধ্যে গ্রেনেড হামলা রীতিমতো থমথমে করে তুলেছে গোটা এলাকাকে।

Advertisement

সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, আজ শুক্রবার সকালে অসমের তিনসুকিয়ায় টিংরাই বাজারে হঠাৎ করে একটি হার্ডওয়ার দোকানের সামনে একটি বাইক এসে দাঁড়ায়। তারপর বাইকে বসেই দোকানের দিকে লক্ষ্য করে গ্রেনেড ছোঁড়ে তারা। বোমার আঘাতে দোকানের সামনে উপস্থিত দুই ব্যক্তির তৎক্ষণাৎ মৃত্যু হয়। প্রসঙ্গত, ওই হার্ডওয়ার দোকানের মালিক ছিলেন তরুণ আগারওয়াল। বিস্ফোরণের খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছায় এলাকার পুলিশ এবং সিআরপিএফ। ইতিমধ্যেই পুরো এলাকা ঘিরে ফেলা হয়েছে যাতে না তদন্ত কাজে কোন বাধা পায়। এছাড়া তিনসুকিয়া পুলিশ বিস্ফোরণ ঘটনার তদন্ত করতে জোরকদমে মাঠে নেমে পড়েছে।

অসমে সম্প্রতি প্রায়ই এরকম বিস্ফোরণের ঘটনা খবরের শিরোনামে আসছে। এই জন্য প্রশাসন এই বিস্ফোরণের তদন্ত করতে গিয়ে প্রাথমিক অনুমান হিসেবে বলেছে যে এহেন হামলার পিছনে নাশকতার ছক থাকতে পারে। কারণ এই একই অঞ্চলে মাত্র ২৪ ঘন্টা আগে এক শিশু গ্রেনেড হামলায় প্রাণ হারিয়েছিল। তাই পুলিশের অনুমান বড় কোন নাশকতার ছক থাকলে এখন থেকে তদন্ত করে তা ঠাহর করতে হবে।

Advertisement

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বিধানসভা নির্বাচনের পর কিছুদিন আগেই অসমের মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ গ্রহণ করেছেন হিমন্ত বিশ্বশর্মা। তার শপথ গ্রহণের ৪৮ ঘন্টা পরেই পরপর দুটি বিস্ফোরণের ঘটনা রীতিমতো উদ্বেগে ফেলেছে অসম প্রশাসনকে। তারা ঘটনায় গুরুতরতা বুঝে ইতিমধ্যেই জোরকদমে বিস্ফোরণের কারণ জানতে তদন্ত শুরু করে দিয়েছে। তারা কোনোভাবেই বৃহস্পতিবার এবং শুক্রবারের বিস্ফোরণের ঘটনাকে নিছক দুর্ঘটনা বলে মেনে নিতে রাজি নয়।

Related Articles

Back to top button