ব্যবসা-বানিজ্য ও অর্থনীতি

পার্সোনাল লোন নেওয়ার ক্ষেত্রে এই পাঁচটি টিপস মেনে চলুন

আপনার CIBIL স্কোরটি পরীক্ষা করতে থাকুন: CIBIL স্কোর আপনার ক্রেডিট ইতিহাসের সূচক। যখন কোনও আনসিকিউর্ড পার্সোনাল লোনের কথা আসে, ঋণদাতারা আবেদনকারীর CIBIL স্কোরটি পরীক্ষা করে। CIBIL স্কোর ভালো হলে পার্সোনাল লোন পেতে কোনো সমস্যা হয়না।

সময়মতো আপনার বিলগুলি পরিশোধ করুন: আপনার বিলগুলি সময়মতো পরিশোধ করুন। এটি কোনও লোন, ক্রেডিট কার্ড বিল বা ইউটিলিটি বিলের ইএমআই সঠিক সময়মতো প্রদান করছেন কিনা তা নিশ্চিত হয়ে নিন। এই একটি অভ্যাস আপনাকে অনেক ঋণদাতাদের দ্বারা নির্ধারিত ব্যক্তিগত লোন যোগ্যতার মানদণ্ড পূরণ করতে সহায়তা করবে।

খুব প্রয়োজনেই পার্সোনাল লোন নিন: যদি আপনি ঘন ঘন পার্সোনাল লোনের জন্য আবেদন করেন তবে এটি আপনার ক্রেডিট ইতিহাসের উপর খারাপ প্রভাব ফেলতে পারে। ঘন ঘন লোনের অর্থ আপনাকে ঘন ঘন ইএমআই দিতে হবে। এটি ঋণদাতাদের এই ধারণা দেবে যে আপনি একজন বেপরোয়া ব্যয়কারী এবং আপনার আর্থিক সঠিকভাবে পরিচালনা করতে অক্ষম। তাই খুব প্রয়োজন ছাড়া বারবার পার্সোনাল লোন নেবেন না।

ক্রেডিট ইউটিলাইজেশন রেশিও যত সম্ভব কম রাখুন: যদি আপনার ক্রেডিট ইউটিলাইজেশন রেশিও বেশি হয়, তবে এটি আপনার ক্রেডিট স্কোরকে হ্রাস করতে পারে। সুতরাং, আপনার ক্রেডিট লিমিট ঠিকঠাক ভাবে ব্যবহার করা দরকার।

একাধিক ক্রেডিট কার্ড এড়িয়ে চলুন: একাধিক ক্রেডিট কার্ড থাকলে প্রতি মাসের শেষে একাধিক ডেবিট পরিশোধ করতে হয়। ফলে কোনো একটি বিল পরিশোধের কথা ভুলে গেলেই হয় মুশকিল। সেটি আপনার ক্রেডিট রিপোর্টে একটি ডিফল্ট বা লেট পেমেন্ট হিসাবে প্রতিফলিত হয়। এর ফলে আপনার ক্রেডিট স্কোর নেমে যায়। সুতরাং কেবলমাত্র একটি বা দুটি ক্রেডিট কার্ড রাখুন যাতে আপনি সময় মতো ক্রেডিট কার্ডের বিল পরিশোধ করতে পারেন।

Tags

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button