টলিউডবিনোদন

দেবলীনার নিশানায় নরেন্দ্র মোদি, দাড়ি ও গেরুয়া বসন নিয়ে কটাক্ষ অভিনেত্রীর

×
Advertisement

অভিনেত্রী দেবলীনা কুমার (Devlina kumar) টলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে স্পষ্টকথনের জন্য বিখ্যাত। দেবলীনা সাধারণতঃ তাঁর কোনও ছবি এডিট করে সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেন না। কিছুদিন আগেই বলিউড দিভা মালাইকা অরোরা (Malaika arora) স্ট্রেচমার্কস সহ ছবির জন্য সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোল হয়েছিলেন। সেলিব্রিটি থেকে সাধারণ মহিলা নির্বিশেষে প্রায় সবার খারাপ লেগেছিল এই ঘটনাটি। বিভিন্ন শারীরিক কারণে মেয়েদের শরীরে স্ট্রেচমার্কস আসে। এর মধ্যে রয়েছে মাতৃত্বকালীন পরিবর্তনও। মাতৃত্বের কারণে সন্তানের জন্মের পর মহিলাদের শরীরে স্ট্রেচমার্কস আসে। দেবলীনাও একরকম প্রতিবাদ করেছিলেন স্ট্রেচমার্কস সহ নিজের কিছু ছবি ইন্সটাগ্রামে শেয়ার করে। তাঁর ছবিগুলিতে দেবলীনার বেলি-র অংশে রয়েছে প্রচুর স্ট্রেচমার্কস। একসময় দেবলীনা যথেষ্ট মোটা ছিলেন। কড়া ডায়েট ও এক্সারসাইজের ফলে শেপে এসেছেন দেবলীনা। কিন্তু তাঁর অতীতের স্থূলতা তাঁর শরীরে রেখে গেছে স্বাক্ষর। ফলে তাঁর বেলি-র অংশে রয়ে গিয়েছে স্ট্রেচমার্কস। ছবিগুলি শেয়ার করে ক্যাপশন দিয়ে দেবলীনা লিখেছেন, এগুলি তাঁর পরিবর্তনের প্রমাণ। দেবলীনার ছবিগুলি নেটদুনিয়ায় ভাইরাল হয়েছে।

Advertisement

2021-এর ভোটে দেবলীনা তাঁর বাবা দেবাশিস কুমার (Debashish kumar)-এর হয়ে প্রচার শুরু করেছেন। বিধানসভা নির্বাচনে রাসবিহারী কেন্দ্র থেকে তৃণমূলের প্রার্থী হয়েছেন দেবাশিস কুমার। কিছুদিন আগেই বাবার হয়ে প্রচার করতে গিয়ে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)-কে বিদ্রুপ করে দেবলীনা বলেছেন, বাংলার মেয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) আগে পায়ে হেঁটে ঘুরতেন। কিন্তু আহত হওয়ার পর তিনি এখন হুইলচেয়ারে ঘোরেন। অথচ দিলীপ ঘোষদের মত নেতারা বিলাসবহুল ভ‍্যানিটি ভ‍্যান ছাড়া চলতে পারেন না। দেবলীনার মন্তব্য নেটদুনিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। এর পাশাপাশি মনে পড়ে যায় বছর কয়েক আগের ঘটনা যখন রূপা গাঙ্গুলী (Rupa Ganguly) বিজেপির হয়ে পদযাত্রায় বেরিয়েছিলেন। তাঁর সঙ্গেও ছিল ভ‍্যানিটি ভ‍্যান। সেই সময় কিন্তু এই দিলীপ ঘোষ-রাই রূপাকে কটাক্ষ করে বলেছিলেন, অন্যান্য মহিলা নেত্রীরা যদি পায়ে হেঁটে পদযাত্রা করতে পারেন, তাহলে রূপা কেন ভ‍্যানিটি ভ‍্যান ব্যবহার করবেন! তাহলে কয়েক বছরের মধ্যেই দিলীপ ঘোষের ক্ষেত্রে চিত্রটা বদলে গেল কেন? কি জানি! দিলীপ ঘোষ হয়তো নিজেকে শ্রীরামচন্দ্র এবং ভ‍্যানিটি ভ‍্যানকে রথ ভাবছেন। তাঁকে বললে তাঁর রেডি উত্তর মুখে বসানোই আছে “পার্টি দিচ্ছে”।

এবার দিলীপ ঘোষের পর দেবলীনা বিঁধলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra modi)-কে। নরেন্দ্র মোদীর সাদা লম্বা দাড়ি ও চুল এবং গেরুয়া বসনকে কটাক্ষ করে দেবলীনা বলেছেন, মোদীজি একইসঙ্গে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর (Rabindranath Tagore) ও বিবেকানন্দ (swami vivekananda) সাজতে চাইছেন। এই কারণে তিনি রবীন্দ্রনাথের মতো সাদা দাড়ি ও চুল রেখেছেন এবং বিবেকানন্দের মতো গেরুয়া বসন পরেছেন। কারণ মোদীজিও জানেন, রবীন্দ্রনাথ ও বিবেকানন্দ বাঙালির হৃদয়ের কাছাকাছি। তাই তিনি বাংলার ভোট টানার জন্য এই ইমোশনকে ব্যবহার করেছেন। কিন্তু বাঙালি এত বোকা নয়। তবে যেভাবে নরেন্দ্র মোদী ‘সুনার বাংলা’ বলছেন, তাতে বাংলার সোনাটুকু নিয়ে না দিল্লি ফিরে যান নরেন্দ্র মোদীর মতো গুজরাটি ব্যবসায়ী। তবে এটা অনস্বীকার্য, ‘‘খেলা হবে’’ নয়, এবার বলতেই হবে “খেলা দারুণ জমেছে”।

Advertisement

Related Articles

Back to top button