ক্রিকেটখেলা

গুরু শিষ্যর লড়াইয়ে শেষ হাসি হাসল শিষ্য

×
Advertisement

৭ উইকেটে চেন্নাইকে হারিয়ে আইপিএল ২০২১ এর দ্বিতীয় ম্যাচ জিতল দিল্লি। টসে জিতে বোলিং এর সিদ্ধান্ত নেয় দিল্লি ক্যাপিটালস। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৮৮ রানে পৌঁছায় চেন্নাই। চেন্নাইয়ের বোলারদের সামনে ঢাল হয়ে দাঁড়িয়ে থেকে ম্যাচ জিতে নেয় পন্থের নেতৃত্বাধীন দিল্লি ক্যাপিটালস।

Advertisement

প্রথমে ব্যাটিং এ নেমে ওপেনিং জুটি ব্যর্থ হয়। রুতুরাজ গায়কোয়াড় ৮ বলে মাত্র ৫ রান সংগ্রহ করে ক্রিস ওকসের বলে ক্যাচ আউট হন এবং ডু প্লেসিস ৩ বলে ০ রান করে আভাশ খানের বলে LBW হন। দলের ৭ রানের মাথায় ২ টি উইকেটের পতন ঘটে। এরপর মইন আলি ও সুরেশ রায়না পার্টনারশিপ গড়ে তোলেন। মইন আলি ২৪ বলে ৩৬ ও রায়না ৩৬ বলে ৫৪ রান করেন। সুরেশ রায়নার প্রত্যাবর্তন দলের মিডল-অর্ডারকে মজবুত করে তুলেছে। ১৫.১ ওভারের মাথায় ক্রিস ওকসের দ্বারা রান আউট হন রায়না। ১৩৭ রানে ৫টি উইকেট হারায় চেন্নাই। রায়ডু ১৬ বলে ২৩ রান করেন। ধোনিকে ফিরতে হয় ০ রানে। আভেশ খানের দ্বারা ক্লিন বোল্ড হন তিনি। স্যাম কারেন ১৫ বলে ৩৪ রানের একটি দ্রুত নক খেলেন। জাদেজা ১৭ বলে ২৬ করে অপরাজিত থাকেন। দিল্লির হয়ে ক্রিস ওকস ও আভেশ খান ২ টি করে উইকেট তোলেন। আশ্বিন ও টম কারেন একটি করে উইকেট পান।|

দিল্লির হয়ে ওপেন করেন শিখর ধাওয়ান ও পৃথ্বী শ। ওপেনিং করতে নেমেই একপ্রকার ম্যাচ জিতিয়ে দেন এই জুটি। মাত্র ৩৮ বলে ৭২ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন পৃথ্বী শ। দলের ১৩৮ রানের মাথায় ব্র্যাভোর বলে ক্যাচ আউট হন তিনি। ধাওয়ান ৫৪ বলে ৮৫ রান সংগ্রহ করেন। শার্দুল ঠাকুরের বলে LBW হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরতে হয় তাঁকে।স্টোইনিস ৯ বলে ১৪ রান করে স্যাম কারেনের দিকে ক্যাচ তুলে দেন। পন্থ ১২ বলে ১৫ রান করে অপরাজিত থাকেন। দিল্লির ব্যাটসম্যানদের সামনে চেন্নাইয়ের বোলিং স্পেল কোনোভাবেই কাজ করেনি। শার্দুল ঠাকুর ২ টি এবং ব্র্যাভো ১ টি উইকেট পান। ১৮.৪ ওভারে ম্যাচ জয় হয় দিল্লির।

Advertisement

Related Articles

Back to top button