বলিউডবিনোদন

জামিন খারিজ, কেঁদে কেঁদে গাল লাল করে ফেললেন রিয়া চক্রবর্তী

শুক্রবারেও জামিনে ‘না’ শুনতে হল মাদককাণ্ডে ধৃত অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তী। বুধবার দুপুর থেকেই ডাল রুটি খেয়ে আছেন অভিনেত্রী। জামিনের আশায় দিন গুনছেন, কিন্তু পরপর তিন দিনিই সেই আশা ভঙ্গ হয়। রিয়ার উকিল সতীশ মানশিন্ডে যতবার জামিনের আর্জি নিয়ে আদালতের দারস্থ্ব হয়েছেন ততবার সেই জামিনের আর্জি নাকচ করে দেয় সেশন কোর্ট। এদিন রিয়া জানান, বাইকুল্লার মহিলা সংশোধনাগারে তাঁর সঙ্গে দুর্ব্যবহার করা হয়েছে। তাঁকে শারীরিক অত্যাচার এবং ধর্ষণের ভয় পর্যন্ত দেখানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, নারকোটিক্স কন্ট্রোল বুরো সংস্থার অশোক জৈনের কথায়, ‘‘রিয়ার বিরুদ্ধে আমাদের হাতে প্রমাণ রয়েছে। তার ভিত্তিতেই আমরা ওকে গ্রেফতার করেছি। আর তাকে হেফাজতে নেওয়ার দরকার নেই আমাদের।’’ ওই দিন রিয়া স্বীকার করে নেন, সুশান্তের জন্য মারিজুয়ানা-সহ নানা ধরনের মাদক জোগাড় করতেন তিনি নিজে। এরপর মেডিক্যাল পরীক্ষার পরেই ভিডিয়ো লিঙ্কের মাধ্যমে আদালতে তোলা হয় অভিনেত্রীকে।

উল্লেখ্য, রিয়া এনসিবি-কে জানিয়েছেন, “মার্চ থেকে জুনের প্রথম দিক পর্যন্ত তিনি সুশান্তের জন্য মোট ১৬৫ গ্রাম মারিজুয়ানা জোগাড় করেছিলেন। এনসিবির দাবি, ‘‘এ থেকেই স্পষ্ট, ড্রাগ সিন্ডিকেটে রিয়ার যোগ ছিল।’’ উল্লেখ্য, ২০১১ সালে কোকেন মামলায় গ্রেফতার হয়েছিলেন বলিউড অভিনেতা ফারদিন খান। অবশ্য, কঙ্গনা রানাউত স্পষ্ট করে জানিয়েছেন, বলিউডে মাদক ব্যবহারের কথা। তিনি নির্দিষ্ট কিছু নাম নিয়ে সরাসরি জানিয়েছেন মাদক ব্যবহারের কথা।

রিয়ার জামিন না হওয়ার পেছনে তবে কী কারণ থাকতে পারে? এই ব্যপারে, সেশন কোর্টে নার্কোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো দাবি করে, এই মুহূর্তে রিয়াকে জামিনে ছাড়া হলে তিনি প্রভাবশালী যোগাযোগ কাজে লাগিয়ে তথ্যপ্রমাণ নয়ছয় করতে পারেন রিয়া চক্রবর্তী।

Tags

Related Articles

Back to top button