বলিউডবিনোদন

মেয়ের প্রথম ছবি প্রকাশ করে মনের কথা বললেন অভিনেতা অপারশক্তি



দিন কয়েক আগেই খুশির খবর মিলেছে খুরানা পরিবারে বাবা হয়েছেন বলিউড অভিনেতা অপারশক্তি খুরানা। খুরানা পরিবারে এল ছোট্ট পরী। আর জ্যেঠু জ্যেঠিমা হলেন আয়ুষ্মান খুরানা আর তাহিরা কাশ্যপ। খুরানা পরিবারে এই নতুন অতিথি আসার অপেক্ষায় দিন গুণছিলেন গোটা পরিবার। অবশেষে সব অপেক্ষার অবসান ঘটে। সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে এই সুখবর সকলের সাথে ভাগ করে নিলেন অপরাশক্তি। অনুগামীদের জানালেন দুই থেকে তিন হলেন অপারশক্তি এবং আকৃতি।

এখন মেয়ে আসাতে গোটা পরিবারে খুশির আমেজ। প্রথমবার বাবা হয়ে আনন্দে উচ্ছ্বসিত নতুন পাপা।
অপরাশক্তি আর আকৃতি সদ্যোজাতর নাম রেখেছেন আজোই এ খুরানা। মঙ্গলবার সকালে অভিনেতা ইনস্টাগ্রামে একরত্তির প্রথম ঝলকের একটি ছবি পোস্ট করেছেন। মেয়ের মুখ না দেখাননি অভিনেতা তবে মেয়ের আঙুল ধরার ছবি পোস্ট করেন। এই ছবিটি দেখে বোঝা যাচ্ছে সেটি তার জন্মের পরপরই হাসপাতালে তোলা। সেখানে দেখা যায় নতুন বাবা মা ছোট্ট মেয়ের হাত ধরে রেখেছেন। এই ছবি পোস্ট করে নতুন বাবা ক্যপাশানে লিখেছেন,” এটি হল জীবনে খুশি-ভালোবাসাকে ঘিরে তৈরি ত্রিভুজ”।

এখন এই একরত্তিকে নিয়েই সময় কাটছে তাঁর। একেবারেই বদলে গিয়েছে তাঁর জীবন। ভালোবাসায় ভরে গিয়েছে। ছবিটি প্রকাশ করার পরেই এর কমেন্ট বক্সে শুভেচ্ছায় ভরিয়ে দিয়েছেন তাঁর অনুরাগীরা। নতুন বাবা হওয়ার উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে অভিনেতা এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন,” নিজের জীবনের ভালোবাসার সঙ্গে নিজের পরিবারকে বড় করা একটি দুর্দান্ত অনুভূতি। তিনি ও আকৃতি সন্তানের জন্ম নিয়ে একটু টেনশনে ছিলেন কিন্তু ঈশ্বরের কৃপায় এটি সহজেই হয়ে গেল। তাঁদের প্রতি এত দয়াশীল হওয়ার জন্য তিনি ঈশ্বরকে অনেক ধন্যবাদ জানিয়েছেন। নিজেকে সত্যিই অনেক ধন্য মনে করেন’।

প্রথমবার আজোইকে কোলে নেওয়ার প্রসঙ্গে বলেন ক“এটি ভাষায় বর্ণনা করা যায় না। একজন আসছে এটা ভেবেই তাঁদের পুরো দ্বিতীয় লকডাউনটি কেটেছে। তিনি যখন প্রথম আজোইকে হাত দিয়ে ধরেছিলেন তখন তাঁর মনে হয় এই ছোট্ট শিশুটি অর্ধেক তাঁর জীবন এবং অর্ধেক মানুষ তাঁর স্ত্রী যাকে তিনি খুব ভালোবাসেন। উল্লেখ্য,২০১৪ সালে একে অপরকে ভালোবেসে গাঁটছড়া বাঁধেন অপারশক্তি ও আকৃতি। বিয়ের ৬ বছরের মাথায় প্রথম সন্তানের বাবা মা হলেন অভিনেত্রী। এর আগে সোশ্যাল মিডিয়াতে সন্তান আগমনের খবর জানিয়ে নানান ছবি পোস্ট করেছিলেন অপারশক্তি।

Related Articles

Back to top button