বলিউডবিনোদন

নিজের অত্যন্ত পছন্দের এক কোটি টাকার মার্সিডিস গাড়ি বিক্রি করছেন অমিতাভ বচ্চন, তাও আবার একেবারে জলের দামে

সম্প্রতি অমিতাভ বচ্চনের পরিবার নিয়ে এরকম একটি বড় খবর সামনে এসেছে

×
Advertisement

বলিউড দুনিয়ার সবথেকে জনপ্রিয় তারকাদের মধ্যে একজন হলেন বিগ বি অর্থাৎ অমিতাভ বচ্চন। তার একটা দুর্দান্ত ফ্যানবেস রয়েছে তিনি সোশ্যাল মিডিয়াতেও অত্যন্ত একটিভ থাকতে পছন্দ করেন। তার একটা বিশাল সংখ্যক ফলোয়ার রয়েছে এবং এখনো পর্যন্ত বলিউড দুনিয়ার বড় বড় সিনেমায় তাকে আমরা দেখতে পাই অভিনয় করতে। তার ছেলে অভিষেক বচ্চন খুব একটা জনপ্রিয় না হতে পারলেও, অমিতাভ বচ্চন এখনো পর্যন্ত বলিউড দুনিয়ায় কিন্তু সুপারস্টার। তার সমসাময়িক অন্যান্য অভিনেতারা অনেকেই নিজেদের বৃদ্ধ বয়সে অবসর নিয়েছেন। কিন্তু অমিতাভ বচ্চন কোনোভাবেই যেন অবসর নিতে চাইছেন না। এখনো পর্যন্ত তার বয়স পর্যন্ত হচ্ছে না।

Advertisement

সম্প্রতি অমিতাভ বচ্চন এর ব্যাপারে একটি বিশাল বড় খবর সামনে এসেছে যেখানে আমরা জানতে পারছি, অমিতাভ বচ্চনকে নিজের অত্যন্ত পছন্দের এবং খুব দামি একটি গাড়ি বিক্রি করে দিতে হচ্ছে একেবারে সস্তা দামের মধ্যে। এই সস্তা দামের মধ্যে গাড়ি বিক্রি করার যদিও তার কাছে একটা বড় কারণ রয়েছে। অভিষেক বচ্চন থেকে শুরু করে সবাই অমিতাভ বচ্চনের এই সিদ্ধান্তে অত্যন্ত দুঃখিত। কিন্তু কেন হঠাৎ করে অমিতাভ বচ্চন এভাবে নিজের গাড়ি বিক্রি করছেন? চলুন জেনে নেওয়া যাক এই কারণ।

Advertisement

অমিতাভ বচ্চন হলে বলিউড দুনিয়ার এমন একজন তারকা যাকে নতুন করে কোন পরিচয় দিতে হয় না। একের পর এক হিট ছবি করে বলিউডে একটা আলাদা জায়গা তৈরি করে ফেলেছেন অমিতাভ বচ্চন। সত্তর এবং আশির দশকে অ্যাকশন সিনেমা করে, এবং তার পরে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ অথচ সিরিয়াস চরিত্রে অভিনয় করে, অমিতাভ বচ্চন নিজের একটা আলাদা জায়গা তৈরি করে ফেলেছেন বলিউডে। বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে তার একটা একতরফা নাম চলে। কিন্তু সম্প্রতি অমিতাভ বচ্চনকে নিয়ে একটা বড় খবর সামনে এসেছে, যেখানে জানা যাচ্ছে অমিতাব বচ্চন নিজের অত্যন্ত পছন্দের এবং বেশ দামী একটি গাড়ি বিক্রি করে দিতে চলেছেন। এমনকি সেই গাড়িতে একটা দাগ পর্যন্ত হয়নি।

এই গাড়িটির নাম হলো মার্সিডিজ এস ক্লাস। এই গাড়িটি বিদেশের গাড়ি এবং যখন অমিতাভ বচ্চন এই গাড়িটি কে কিনেছিলেন তখন তার দাম ছিল প্রায় এক কোটি টাকারও বেশি। কিন্তু এখন অমিতাভ বচ্চন মাত্র ৩০ লক্ষ টাকায় এই গাড়িটি বিক্রি করে দিতে চাইছেন। আপনাদের জানিয়ে রাখি, অমিতাভ বচ্চন যদিও নিজের ইচ্ছাতে এরকম ভাবে গাড়ি বিক্রি করছেন না। আপনারা হয়তো অনেকেই জানেন, যদি আপনি একটি গাড়ি ১৫ বছর ধরে চালান তাহলে আবারও নতুন করে গাড়ির আর-সি তৈরি করতে হয় এবং গাড়ির দাম অনেকটা কমে যায়। সেরকম ভাবেই দেখতে গেলে অমিতাভ বচ্চনের বাড়ির এই গাড়িটির বয়স হয়ে গেছে মোটামুটি ১৪ বছর। তাই এই মুহূর্তে এই গাড়ির দাম অনেকটা কমে গিয়েছে। এই কারণেই অমিতাভ বচ্চন নিজের গাড়িটা বিক্রি করে দিতে চাইছেন অত্যন্ত সস্তা দামের মধ্যে।

Related Articles

Back to top button