×
Today Trending Newsদেশনিউজরাজ্য

Alapan Bandyopadhyay: হাতে সময় মাত্র কিছু ঘন্টা, দিল্লি যাবেন আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়? কেন্দ্র-রাজ্য সংঘাত তুঙ্গে

আগামীকাল সোমবার আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় মমতার সাথে একটি বৈঠকে উপস্থিত থাকবেন

Advertisement

চলতি মাসের শেষার্ধে এসে গত শুক্রবার থেকে বঙ্গ রাজনীতিতে আলোচ্য বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে হঠাৎ করে রাজ্যের মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে দিল্লিতে ডেকে নেওয়ার প্রসঙ্গ। তার হাতে মাত্র আর কয়েক ঘন্টা সময়। তার মধ্যেই আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে সিদ্ধান্ত নিতে হবে তিনি দিল্লি পাড়ি দেবেন কিনা। এমনকি এরমধ্যেই নবান্ন থেকে কেন্দ্রকে চিঠি পাঠানো হয়েছে যে তারা এই মুহূর্তে রাজ্যের মুখ্যসচিবকে ছাড়তে পারবে না। আর এরফলেই রাজ্য কেন্দ্রের সংঘাত আরও চওড়া হয়েছে। তবে নবান্ন সূত্রে জানা গিয়েছে যে মুখ্যসচিব আপাতত দিল্লিতে ফিরে যাচ্ছেন না। তিনি রাজ্যের সৈনিক হয়ে করোনা এবং যশ পরিস্থিতি সামলানোর কাজ করবেন।

Advertisement

আসলে আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় যদি এই মুহূর্তে দিল্লি যান তাহলে তার অবসর হয়ে যাবে। সরকারি নিয়ম অনুযায়ী ৩১ শে মে তার অবসর গ্রহণের দিন। কিন্তু কিছুদিন আগেই অবসর গ্রহণের দিন ৩ মাস পিছিয়ে দেওয়া হয়েছিল মুখ্যসচিব হিসাবে। এর ফলে তিনি মুখ্যসচিব হিসাবে বর্তমানে রাজ্যে থাকলে তার অবসর হবে না যা বাংলার স্বার্থে খুবই জরুরী। কিন্তু তিনি যে মুহূর্তে দিল্লি ফিরে যাবেন তখন তার অবসর হয়ে যাবে। এই বিষয়ে গতকাল মুখ খুলেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। তিনি নবান্নের এক বৈঠকে অনুরোধ করে বলেছেন, “যত তাড়াতাড়ি সম্ভব কেন্দ্রের চিঠি প্রত্যাহার করা হোক। কোন আইনে তাকে ডেকে পাঠানো হচ্ছে? স্বাধীনতার পর ৭৪ বছরে দেশে কখনো এমন ঘটনা ঘটেনি।”

এছাড়া মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, “মুখ্যসচিবের বিরুদ্ধে কেন্দ্র সরকার রাজনৈতিক প্রতিহিংসা নিয়ে পথে নেমেছে। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব চিঠি প্রত্যাহার করুন। কেন্দ্রের ক্ষমতা আছে তাদের আধিকারিককে তলব করার। কিন্তু তাতে অবশ্যই ওই আধিকারিকের মনের ইচ্ছা জানা প্রয়োজন। ইচ্ছার বিরুদ্ধে তাকে দিল্লি নিয়ে যাওয়া সহজ কাজ হবে না। রাজ্য আমলাকে ছাড়ছে নাকি সেটাও একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে রাজ্যের মুখ্য সচিব হিসেবে এখন কোভিড এবং ঘূর্ণিঝড় নিয়ে কাজ করতে দিন।”

Advertisement

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, মমতা ব্যানার্জি আগে থাকতেই কেন্দ্র সংঘাতের বিষয়ে প্রস্তুত থাকতে চাইছেন। তাই তিনি আগামীকাল অর্থাৎ সোমবার রাজ্যের সমস্ত প্রধান সচিবদের নিয়ে একটি বৈঠক করবেন। সেই বৈঠকে উপস্থিত থাকবেন মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ও। এমনটাই জানিয়েছে নবান্ন। এই ঘোষণার পর এটা একপ্রকার স্থির যে আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় আগামীকাল দিল্লি যাচ্ছেন না। তিনি রাজ্যের মুখ্যসচিব বাকি ৩ মাস কাজ করতে চান। অন্যদিকে, কেন্দ্র সরকার তাদের চিঠি প্রত্যাহার করে নেয় নাকি, সেটাই এখন দেখার।

Related Articles

Back to top button