টেক বার্তা

Yamaha কোম্পানির নতুন সুপার বাইক MT15, দেখে নিন দাম এবং স্পেসিফিকেশন

এই নতুন বাইকের সাথে আপনারা পেয়ে যাবেন দুর্দান্ত ইঞ্জিন এবং দুরন্ত স্পীড

×
Advertisement

ভারতের অত্যন্ত জনপ্রিয় মোটর ভেহিকেল সংস্থা ইয়ামাহা আর কিছুদিনের মধ্যেই লঞ্চ করতে চলেছে তাদের নতুন মোটরসাইকেল। এই কোম্পানি তাদের অত্যন্ত জনপ্রিয় এবং অত্যন্ত পাওয়ারফুল মোটর সাইকেল MT15 এর পরবর্তী মডেল খুব শীঘ্রই ভারতের বাজারে লঞ্চ করতে চলেছে। ইয়ামাহা কোম্পানি তরফ থেকে জানানো হয়েছে এই নতুন মোটরসাইকেল এর নাম হবে Yamaha MT15 V2.0। ডিলারশিপ এর তরফ থেকে ইতিমধ্যেই এই বাইকের বুকিং শুরু করে দেওয়া হয়েছে এবং এই বাইকের লেটেস্ট ছবি সকলের জন্য প্রকাশ করে দেওয়া হয়েছে কোম্পানির তরফ থেকে।

Advertisement

আপনাদের জানিয়ে রাখি ইয়ামাহা কোম্পানির MT15 বাইকটি মূলত ইয়ামাহা YZF-R15 V4 এর স্ট্রিট নেকেড মডেল এবং এই বাইকের ইঞ্জিন এবং অন্যান্য সবকিছুই নেওয়া হয়েছে R15 থেকেই। আপনাদের জানিয়ে রাখি, এই কোম্পানির MT15 এর দাম আগে রাখা হয়েছিল ১.৪৬ লক্ষ টাকা (এক্স শোরুম প্রাইস)। মনে করা হচ্ছে এর পরবর্তী মডেলে এই বাইকের দাম বৃদ্ধি পাবে।

ভারতের মার্কেটে যখন MT15 এর পরবর্তী মডেল আসবে তখন তার সরাসরি মোকাবিলা হবে TVS অ্যাপাশে RTR 200 4V, বাজাজ পালসার NS 200 ও KTM Duke 200 এর মত বাইকের সাথে। এই সমস্ত বাইক ইঞ্জিন এবং গতির দিক থেকে একে অপরের মূল প্রতিদ্বন্দ্বী। যদি আপনি এই ধরনের সুপার বাইক ব্যবহার করতে পছন্দ করে থাকেন তাহলে ৫,০০০ থেকে ১০,০০০ টাকার টোকন ব্যবহার করে এই নতুন ইয়ামাহা MT15 বুকিং করে নিতে পারেন। আমরা মনে করছি কোম্পানি আরও কিছু নতুন পরিবর্তন নিয়ে এসে একটি দমদার বাইক হিসেবে মার্কেটে উপস্থাপিত করবে এই নতুন MT15 এর V2.0 বাইকটিকে।

Advertisement

কোম্পানির তরফ থেকে আপাতত যেটুকু তথ্য পাওয়া যাচ্ছে তার উপর নির্ভর করে বলা যায়, এই নতুন মডেলটি আগের বাইকের থেকে আরও কিছু নতুন রং এর অপশন নিয়ে মার্কেটে আসবে। এছাড়াও এই নতুন বাইকে আপনারা পেয়ে যাবেন সোনালী রঙের ফর্কের পরিবর্তে নতুন রঙের ফর্ক। এছাড়াও এই বাইকের সাসপেনশন সেটআপ অনেকটাই পরিবর্তিত হবে। এই নতুন বাইকের সাথে আপনারা কুইক শিফটার এবং ট্রাকশন কন্ট্রোল ফিচার পেয়ে যেতে পারেন। তবে আগের মতোই এই বাইকের সঙ্গে আপনারা পেয়ে যাবেন ১৫৫ সিসি লিকুইড কুল্ড সিঙ্গেল সিলিন্ডার ইঞ্জিন যা সর্বাধিক ১০,০০০ আরপিএম গতিতে ১৮.১ বিএইচপি ক্ষমতা তৈরি করতে পারে। এছাড়াও, এই ইঞ্জিন ৭,৫০০ আরপিএম গতিতে ১৪.২ ন্যানোমিটার গতিতে সর্বাধিক টরক জেনারেট করতে পারবে। তার সাথে সাথেই এই বাইকের সাথে আপনারা পেয়ে যাবেন ৬ স্পিড ট্রান্সমিশনের মত অত্যাধুনিক কিছু ফিচার।

Related Articles

Back to top button