নিউজরাজ্য

নিয়োগ চাই, নিয়োগ করতে হবে, এই দাবিতে নবান্ন অভিযান আপার প্রাইমারি চাকরিপ্রার্থীদের

×
Advertisement

কলকাতা: নিল-সাদা বাড়ি হাসিলের লড়াইয়ের আগেই বাংলা দেখেছে নবান্ন (Nabanna) অভিযানের মিছিল। গতকাল, বৃহস্পতিবার (Thursday) সারা বাংলা শুধু ভেবেছে কোথায় ছিল এতো সমর্থক, এত তেজ, ঝাঁঝ? গোটা কলকাতা (Kolkata) কাল তাকিয়ে দেখেছে চাকরির জন্য, ভবিষ্যতের জন্য, বেঁচে থাকার জন্য হাজার হাজার ছেলেমেয়ে জবাব চাইতে গিয়েছিল নবান্নে। আর আজ, শুক্রবার (Friday) দিনভর হল আবার নবান্ন অভিযান। পশ্চিমবঙ্গ (Westbengal) আপার প্রাইমারি চাকরিপ্রার্থী মঞ্চ আজ নিয়োগের দাবিতে নবান্নের সামনে পৌঁছতে না পেরে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন রাস্তায় বসে।

Advertisement

দীর্ঘ ৭ বছর ধরে রাজ্যে থমকে আছে আপার প্রাইমারির নিয়োগ। এই ব্যাপারে কোনোভাবেই মুখ খুলছে না রাজ্য সরকার। বলছেন না কিছুই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রীর ওয়ার্কিং mail id তে পাঠিয়েও কখনো খুলে দেখেননি তিনি। অভিযোগ, রাগ ক্ষোভ জমে আছে হাজার হাজার শিক্ষক হতে চাওয়া বেকার দের মধ্যে। সেই নিয়েই তাঁদের আজকের নবান্ন অভিযান।

তবে গতকাল বামেদের নবান্ন অভিযানে ছাত্র ছাত্রীদের ওপর পুলিশের লাঠচার্জ এবং জলকামানের ব্যবহারের প্রতিবাদে আজ বাংলা বনধ ডেকেছে বাম সংগঠন গুলি। তাকে সমর্থন জানিয়েছে কংগ্রেস, ফ্রন্ট সেকুলার। এই পরিস্থিতিতে বনধ পূর্ব পরিকল্পিত হলেও অনেকে এসে উপস্থিত হতে পারেন নি। যাঁরা উপস্থিত হয়েছেন, বিক্ষোভ সামনে আনছেন নিজেদের দাবি। দীর্ঘ কাল নিয়োগ স্থগিত কেনো? এই পরিস্থিতিতে তাঁরা হস্তক্ষেপ চান খোদ মুখ্যমন্ত্রীর। আগামী ২৮ সে ফেব্রুয়ারির মধ্যেই নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ করার দাবিও জানাচ্ছেন তাঁরা।

Advertisement

১২ঘণ্টা বাংলা হরতালের কারণে সকলে আসতে না পারলেও উপস্থিত হয়েছেন অনেকেই। দুপুর ১২ টা নাগাদ শেয়ালদাহ বিগবাজারের সামনে জমায়েত হয়ে এগিয়ে যাওয়ার কথা ছিল নবান্নের দিকে। কিন্তু মিছিল শুরুর আগেই সেখানেই আটকে দেয় পুলিশ। তাই সেখানেই বসে আন্দোলন চালাচ্ছেন তাঁরা। অপেক্ষা বনধ উঠলে বাকিদের আসার। নিজেদের দাবিতে এই আন্দোলন চালাবেন তাঁরা বলে জানিয়েছেন।

Related Articles

Back to top button