কলকাতানিউজরাজ্য

High Court: কালীপুজোয় এবার ‘নো এন্ট্রির’ নির্দেশ দিল হাইকোর্ট

দুর্গাপুজোর পর পরই রাজ্যে ফের ঊর্ধ্বমুখী হয়ে পড়েছে কোভিড সংক্রমণ। আর এই করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে এবার নতুন নির্দেশিকা জারি করেছে কলকাতা হাইকোর্ট। এই নির্দেশিকাতে স্পষ্ট বলা হয়েছে, কালীপুজো, জগদ্ধাত্রী পুজো এবং কার্তিক পুজোতে দর্শকশূন্য থাকবে মন্ডপ। কারোর জোড়া ভ্যাকসিন নেওয়া থাকলেও মন্ডপের ভেতরে ভিড় করতে পারবেন না মানুষ। সাথে কড়াভাবে কালীপুজো এবং জগদ্ধাত্রী পুজোয় ভিড় নিয়ন্ত্রণের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এবার দুর্গাপুজোতেও দর্শনার্থীদের মণ্ডপে প্রবেশের উপর নিষেধাজ্ঞা করা হয়েছিল। শুধুমাত্র পুজো কমিটির সদস্যদের মণ্ডপে প্রবেশে অনুমতি দেওয়া হয়েছিল। পাশাপাশি বেঁধে দেওয়া হয়েছিল সর্বোচ্চসীমা। সেইসঙ্গে করোনা টিকার দুটি ডোজ নেওয়া থাকলে অঞ্জলি, সিঁদুর খেলা-সহ দুর্গাপুজোর যে কোনও কাজে অংশগ্রহণ করার ছাড় দেওয়া হয়েছিল। তবে পুজোর সময়ে হাইকোর্টের বিধিনিষেধের কোনো তোয়াক্কা করা হয়নি। রাস্তায় হু হু করে মানুষের ঢল নেমেছিল। সামাজিক দূরত্ববিধি তো কার্যত মানা হয়নি উলটে করোনর নিয়মবিধি অমান্য করা হয়েছিল। আর তা নিয়ে সম্প্রতি ক্ষোভও প্রকাশ করেছিল হাইকোর্ট।

গত সোমবার একটি আবেদনের শুনানিতে রীতিমতো অসন্তোষ প্রকাশ করেছে বিচারপতি শিবকান্ত প্রসাদ এবং বিচারপতি আনন্দ কুমারের অবকাশকালীন বেঞ্চ। এদিন বিচারপতি শিবকান্ত প্রসাদ জানান, দুর্গাপুজোয় ভালোমতো ভিড় হয়েছে। আদালতে নির্দেশ মেনে চলার প্রয়োজন আছে বলে কেউ মনে করেননি। প্রশাসনও ভিড় নিয়ন্ত্রণও ঠিকভাবে করা হয়নি।

উল্লেখ্য, দুর্গাপুজোর সময় মানুষের অসচেনতার প্রভাব পড়েছে রাজ্যকে। একসময় করোনা সংক্রমণের প্রতিদিনের গ্রাফ নিম্নগামী ছিল। কিন্তু বর্তমানে তা দাঁড়িয়েছে প্রায় ১০০০। যা বেশ চিন্তার। টানা কয়েকদিন ধরে দৈনিক কোভিড কেস ৯০০-র উপরে আছে। বিশেষত উদ্বেগ বাড়িয়েছে কলকাতা এবং উত্তর ২৪ পরগনা দুই জেলা।

Related Articles

Back to top button