দেশনিউজ

Mamata Banerjee : প্রতি মাসে ৫ হাজার টাকা দেবে রাজ্য

পশ্চিমবঙ্গ সরকারের তরফ থেকে ছাত্র ছাত্রীদের জন্য একটা দুর্দান্ত স্কলারশিপ হল স্বামী বিবেকানন্দ স্কলারশিপ। বহু পড়ুয়াদের কাছে এটি বিকাশ ভবন স্কলারশিপ নামেও বেশ পরিচিত। প্রতিবারই এই স্কলারশিপ দেওয়া হয়ে থাকে সকল ছাত্র- ছাত্রীদের। ইতিমধ্যেই এবছর এই স্কলারশিপের আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গিয়েছে। ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত এই বছরের ছাত্র-ছাত্রীদের এই আবেদন প্রক্রিয়া চলবে।

এবার প্রশ্ন হল কারা পাবেন এই স্কলারশিপ?
মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক বা কলেজের পরীক্ষায় পাশ করে পড়ুয়ারা যখন পরবর্তী ক্লাসে যাঁরা ভর্তি হযবে তখন , তাঁরা এই স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে পারবেন। আর এই স্কলারশিপে আবেদন করলে ১০০০ টাকা থেকে ৫০০০ টাকা পর্যন্ত পেতে পারেন।

কারা এই স্কলারশিপে আবেদন করতে পারবেন ?

এই নির্দিষ্ট বৃত্তি বা স্কলারশিপ পেতে হলে সকল ছাত্র-ছাত্রীদের নির্দিষ্ট পরিমাণ নম্বর পেতে হবে। তবেই সেই পড়ুয়ারা এই স্কলারশিপে আবেদন করতে পারবেন। দেখে নিন কোন ক্লাসের জন্য কত নম্বর পেলে আবেদন করা যাবে। যেমন, উচ্চমাধ্যমিকে ভর্তি হয়ে থাকলে মাধ্যমিকে সেই পড়ুয়াকে ৬০ শতাংশ নম্বর পেতে হবে।

স্নাতক স্তরের ক্ষেত্রে (অনার্স/ নার্সিং/ প্যারামেডিক্যাল/ ইঞ্জিনিয়ারিং/ ডিপ্লোমা) ভর্তি হয়ে থাকলে উচ্চমাধ্যমিকে সেই পড়ুয়ার ৬০ শতাংশ নম্বর পাওয়া প্রয়োজন। আর যারা পোস্ট গ্র্যাজুয়েশন যাঁরা ভর্তি হয়েছেন তাঁদের গ্র্যাজুয়েশনে ৫৩ শতাংশ নম্বর থাকতে হবে।

তবে শধু নম্বর নয় এই স্কলারশিপ পেতে হলে পড়ুয়াদের আরও কিছু শর্ত মানতে হবে। যেমন, এই স্কলারশিপের আবেদনকারীকে এই রাজ্যের বাসিন্দা হতে হবে। যাঁরা আগে থেকে অন্য কোনও স্কলারশিপ পেয়ে থাকেন তাঁরা আবেদন করতে পারবেন না। এছাড়াও আবেদনকারীর পারিবারিক বাৎসরিক আয় আড়াই লক্ষ টাকার কম হতে হবে।

কীভাবে ছাত্র-ছাত্রীরা আবেদন করবেন ?

সকল পড়ুয়াদের আবেদন করতে হবে অনলাইনে। http://www.svmcm.wbmdfc.co.in/pages/display/156। এই ওয়েবসাইটে সরাসরি আবেদন করতে পারবেন।

এই স্কলারশিপ পেতে ইচ্ছুক সকল পড়ুয়ারা আবেদন করার সময় কোন কোর্সের জন্য স্কলারশিপ চাইছেন তাও বাছাই কতে নিতে পারবেন। আবেদন করার সময় পড়ুয়াদের নিজেদের তথ্য হিসেবে জন্মের শংসাপত্র, পরীক্ষার অ্যাডমিট, আধার কার্ড এবং মার্কশিটের স্ক্যান কপি দিতে হবে। সেই সাথে তাঁদের পারিবারিক আয়ের শংসাপত্র দিতে হবে। স্কলারশিপ পাওয়ার যোগ্য হলেই তবেই তার টাকা সরাসরি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে পাঠিয়ে দেওয়া হবে।

Related Articles

Back to top button