টলিউডবিনোদন

Sreelekha Mitra: পুজোর আগেই বাবাকে হারালেন অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র!

সপ্তাহের শুরুতে টলিউডে ফের খারাপ খবর।টলিউডের অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্রের  পরিবারে দুঃসংবাদ। পুজোর আগেই না ফেরার দেশে পাটি দিলে অভিনেত্রীর বাবা সন্তোষ মিত্র। অভিনেত্রীর এগিয়ে চলার জন্য অনুপ্রেরণা ছিলেন তার বাবাই। আজ সকালে নিজের সোশ্যাল মিডিয়াতে অভিনেত্রী কোনো শব্দ খরচ না করে শুধুমাত্র দুটি শব্দে জানিয়েছেন এই দুঃসংবাদের কথা। ফেসবুকে শ্রীলেখা  লিখেছেন, ‘আমার বাবা’।

অনেক বছর আগেই মাকে হারিয়েছিলেন তিনি। বাবাকে নিয়ে পথ চলছিলেন এবার সেও চলে গেলেন। অভিনেত্রী বেশি  কিছুই লেখেননি তবে অনুগামীরা সাথে সাথেই কমেন্ট বক্সে অভিনেত্রীকে সমবেদনা জানিয়েছেন। তবে এই ক্ষতি যে অপূরণীয় সেটা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। পুজোর আগে বাবাকে হারিয়ে শোকগ্রস্ত শ্রীলেখা মিত্র সহ তাঁর পুরো পরিবার।

শ্রীলেখার বাবা সন্তোষ মিত্রও ছিলেম একজন অভিনেতা ছিলেন। শ্রীলেখার বাবা আজীবন বামপন্থী মনোভাবে বিশ্বাসী ছিলেন। ছোট থেকেই এই রাজনৈতিক পরিবেশে বড় হয়েছেন শ্রীলেখা। নিজের মধ্যেও সেই মতাদর্শ ধীরে ধীরে তৈরি করেছিলেন। বাবার আদর্শেই নিজের রাজনৈতিক মনন তৈরি করেছিলেন অভিনেত্রী। নিজের কেরিয়ারে এগিয়ে যাওয়ার পেছনে অনেক বাধা পেয়েছিলেন অভিনেত্রী৷ তবে তাঁর বাবা কখনো তাঁর কোনো কাজে বাধা দেননি, বরং পাশে থেকে উৎসাহ দিয়েছেন। জীবন থেকে প্রিয় মানুষ চলে যাওয়ায় স্বাভাবিক ভাবেই ভেঙে পড়েছেন শ্রীলেখা।

কিছুদিন আগেই ইউরোপ ট্রিপ সেরে কলকাতায় নিজের মানুষদের কাছে ফিরেছিলেন অভিনেত্রী। ভেনিস আন্তর্জাতিক ফিল্ম ফেস্টিভ‍্যালে দেশের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন এবার শ্রীলেখা। দীর্ঘ ২১ বছর পর আদিত্যবিক্রম সেনগুপ্তের ছবি ‘ওয়ান্স আপন আ টাইম ইন কলকাতা’ মনোনীত হয়েছে ভেনিস চলচ্চিত্র উৎসবে। এই চলচ্চিত্রে মূখ্য ভূমিকাউ অভিনয় করেছেন শ্রীলেখা। সেই সূত্রেই পাড়ি দেন ভেনিসে। ভেনিস আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে আন্তর্জাতিক তারকাদের সঙ্গে তাঁর অভিনীত ছবিটি দেখানো হয়েছে। যা দেশের জন্য ছিল বেশ প্রশংসনীয়।

Related Articles

Back to top button