বলিউডবিনোদন

Hamsa Nandini: ব্রেস্ট ক্যানসারে আক্রান্ত তেলুগু হামসা, এখনো বাকি ৭টি কেমোথেরাপি

Advertisement

আবারো বিনোদন জগতে খারাপ খবর। কর্কট রোগে আগেই নিজের কাছের মানুষের মৃত‍্যু দেখেছেন, সেই রোগই আবার ফিরে এল এই তেলুগু অভিনেত্রীর। ব্রেস্ট ক্যানসারে আক্রান্ত হলেন তেলুগু অভিনেত্রী হামসা নন্দিনী। তেলুগু ইন্ডাস্ট্রির অতি পরিচিত নাম হামসা। বংশপরম্পরায় তাঁর শরীরে এই মারন রোগ এবার বাসা বেঁধেছে। ইতিমধ্যে নয়টি কেমোথেরাপির ট্রিটমেন্ট করিয়েছেন। এখনও আরও সাতটি কেমোথেরাপি বাকি রয়েছে তাঁর।

Advertisement

সোশ‍্যাল মিডিয়ায় এই খারাপ খবর জানিয়ে একটি লম্বা পোস্ট শেয়ার করেছেন অভিনেত্রী। ।এই মারণ রোগই তাঁর কাছ থেকে সব থেকে প্রিয় মানুষ মাকে কেড়ে নিয়েছে। এবার এই রোগের শিকার তিনি নিজে। পোস্টে অভিনেত্রী জানিয়েছেন, ১৮ বছর আগে ক‍্যানসারে প্রয়াত হয়েছেন তাঁর মা। সেই থেকে ভয়ে ভয়ে দিন কাটাচ্ছিলেন তিনি। কারণ তিনি মনে মনে ভেবে নিয়েছিলেন, তাঁর জীবনে পরিবর্তন আসতে চলেছে। এরপর সেই খারাপ সময় এল।

Advertisement
আরো পড়ুন :  ছোট পোশাকে ক্যামেরায় ধরা দিলেন বাঙালি এই অভিনেত্রী

এরপরই অভিনেত্রী আরো বলেন, গত চার মাসে আগেই সব কিছুর শুরু হয়। তাঁর বুকের মধ্যে ছোট্ট একটা মাংসপিণ্ড নজরে আসে। এরপর তড়িঘড়ি চিকিৎসকের পরমর্শ নিয়ে বায়োপসি পরীক্ষা করেন। এরপরেই তাঁর মনের ভয়ই সত্যি হয়। রিপোর্টে আসে, গ্রেড থ্রি ইনভেসিভ কার্সিনোমা (ব্রেস্ট ক্যানসার)-এ আক্রান্ত তিনি। বেশ কিছু স্ক্যান এবং টেস্ট করানোর পর, তাঁর অস্ত্রোপচার করানো হয়। মনে অনেক সাহস বুকে করে তিনি অপারেশন থিয়েটারে প্রবেশ করেছিলেন।

আরো পড়ুন :  Monami Ghosh: লাল শর্ট ড্রেসে, হট লুকে সোশ্যাল মিডিয়ার পাতায় উষ্ণতা ছড়িয়েছে টলিউডের 'পু' মনামী ঘোষ

অভিনেত্রী এই পোস্টে আরো বলেন, ‘আমার টিউমার অপসারণ করা হয়েছিল। সেই মুহুর্তে, চিকিৎসকরা নিশ্চিত করেছেন কোনও ছড়ানোর ব্যাপার নেই এবং আমি ভাগ্যবান এটা প্রথম দিকে ধরা পড়েছে। একটি রূপালী আস্তরণ দেখা যায়’। কিন্তু রূপালী আস্তরণটি স্বল্পস্থায়ী ছিল কারণ তাঁর বংশগত স্তন ক্যানসারের রিপোর্ট পজেটিভ এসেছিল।

অভিনেত্রী আরো বলেন,‘এর অর্থ হল তাঁর একটা জেনেটিক মিউটেশন রয়েছে। যার মানে অভিনেত্রীর আজীবন ৭০ শতাংশ স্তন ক্যানসার এবং ৪৫ শতাংশ ডিম্বাশয়ে ক্যানসারের সম্ভাবনা থেকে যাবে। ঝুঁকি কমানোর একমাত্র উপায় হল কিছু খুব বিস্তৃত প্রফিল্যাকটিক সার্জারি। তাই তাঁকে এঅ রোগটাকে জয় করতে গেলে করতেই হবে’।

হামসা এরপর বলেছেন, তাঁর এখনও ৭টি কেমোথেরাপি বাকি রয়েছে। এরপর তিনি সেই সমস্ত ব্যক্তিদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন, যারা তাঁর স্বাস্থ্য সম্পর্কে রোজ খোঁজ খবর নিয়েছেন। পরিবার, বন্ধু, অভিনয় ইন্ডাস্ট্রির সদস‍্যদের সর্বদা তিনি পাশে পেয়েছেন তিনি। এরপরেই অভিনেত্রীর সকল অনুরাগী এবং শুভানুধ্যায়ীরা নেটমাধ্যমে তাঁর দ্রুত আরোগ্য কামনা করেছেন।

আরো পড়ুন :  Ditipriya-Saurav: এবারের মিশন ‘রুদ্রবীণার অভিশাপ’! বিক্রম-রূপসার দলে নাম লেখালেন দিতিপ্রিয়া- সৌরভ!
Advertisement

Related Articles

Back to top button