নিউজরাজ্য

এবার বাড়বে শিয়ালদহের সব শাখায় ট্রেনের গতি, সর্বোচ্চ গতিবেগ হবে ১০০ কিলোমিটার প্রতি ঘন্টা

শিয়ালদহ ডিভিশনে প্রায় প্রতিদিন ২০ লক্ষ যাত্রী যাতায়াত করেন

×
Advertisement

বাংলায় লোকাল ট্রেনের দৌলতে সকাল সকাল কলকাতার বুকে কাজ করতে আসেন হাজার হাজার মানুষ। এছাড়াও খুবই কম সময়ে এবং অত্যন্ত কম খরচে দূরের কোনো জায়গায় যাতায়াত করতে হলে লোকাল ট্রেনের চেয়ে ভালো আর কিছু হতে পারে না। বিশেষত শিয়ালদা ডিভিশনের মাধ্যমে হাজার হাজার মানুষ রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে কলকাতাতে অত্যন্ত কম খরচে চলে আসতে পারেন। তবে এবার যাত্রীদের কথা ভেবে শিয়ালদহ ডিভিশনের সব শাখায় ট্রেনের গতি বাড়ানোর পরিকল্পনা নিচ্ছে ভারতীয় রেল। এবার লাইন থেকে সিগন্যালের উন্নয়নের কাজ দ্রুত শেষ করা হবে। কমিশনার অফ রেলওয়ে সেফটি দপ্তরের সবুজ সংকেত পেলেই ট্রেনের গতি বাড়ানোর কাজ শুরু করে দেওয়া হবে।

Advertisement

জানা গিয়েছে যেসব শাখায় ট্রেনের গতি ৮০ থেকে ৯০ কিলোমিটার প্রতি ঘন্টা হয় তা এবার হবে ১০০ কিলোমিটার প্রতি ঘন্টা। এই প্রসঙ্গে শিয়ালদহের ডিআরএম এস পি সিং বলেছেন যে গতি বাড়ালে ট্রেন চলাচলের সময় কমবে এবং লাইন বেশিক্ষণ ফাঁকা থাকবে। সেই ফাঁকে মালগাড়ি চালানো যাবে এবং প্রয়োজনে বাড়ানো যেতে পারি যাত্রীবাহী ট্রেনের সংখ্যা। চলতি বছরের মধ্যে কাজ শেষ হতে চলেছে বারুইপুর নামখানা, বারইপুর লক্ষীকান্তপুর, বারুইপুর মথুরাপুর, মথুরাপুর লক্ষ্মীকান্তপুর এবং লক্ষীকান্তপুর নামখানা শাখায়। এই লাইনে এতদিন পর্যন্ত ট্রেনের সর্বোচ্চ গতিবেগ ছিল ৮০ কিলোমিটার প্রতি ঘন্টা। সেই গতি এবার বাড়িয়ে করা হবে ১০০ কিলোমিটার প্রতি ঘন্টা।

অন্যদিকে বনগাঁ শাখার লোকাল ট্রেনগুলিতে এতদিন পর্যন্ত সর্বোচ্চ গতিবেগ ছিল ৯০ কিলোমিটার প্রতি ঘন্টা। এছাড়া রানাঘাট গেদে শাখার ট্রেনগুলিতে গতিবেগ ছিল ৯৫ কিলোমিটার প্রতি ঘন্টা। এবার তা বাড়িয়ে ১০০ কিলোমিটার প্রতি ঘন্টা করা হবে। এছাড়াও শিয়ালদহ নৈহাটি শাখায় এবং নৈহাটি রানাঘাট ও রানাঘাট কৃষ্ণনগর শাখায় ট্রেনের গতি বাড়িয়ে ১০০ কিলোমিটার প্রতি ঘন্টা করা হবে। এরফলে উপকৃত হবে প্রায় ২০ লাখ নিত্যযাত্রী। ইতিমধ্যেই বারাসাত হাসনাবাদ, বারুইপুর ডায়মন্ড হারবার, কৃষ্ণনগর লালগোলা, বালিগঞ্জ করেয়া শাখার ট্রেনের গতি বাড়ানো হয়েছে।

Advertisement

Related Articles

Back to top button