নিউজপলিটিক্সরাজ্য

দলবদলের মধ্যেই এবার ঘরবদল, রাজ্য বিজেপি অফিসে মুকুলের ঘর এখন শোভন-বৈশাখির

অন্যদিকে কলকাতা জোনের দায়িত্ব পেলেন কেন্দ্রীয় নেতা সুনীল বণসল ( Sunil Bansal )

Advertisement

দলবদল তো চলছেই, এবারে রাজ্য বিজেপি সদর দপ্তরে হতে চলেছে ঘর বদল। মুকুল রায়ের (Mukul Roy) ঘর এবারে দেওয়া হচ্ছে শোভন চট্টোপাধ্যায় (Sovan Chatterjee) কে। ওই একই ঘর বরাদ্দ করা হয়েছে বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় (Baishakhi Banerjee) এর জন্য। গত ২৭ ডিসেম্বর শোভন চট্টোপাধ্যায় কে করা হয়েছে বিজেপির কলকাতা জোনের পর্যবেক্ষক। আর বৈশাখী হয়েছেন সহ পর্যবেক্ষক।

অন্যদিকে, কলকাতা জোনের দায়িত্ব পেয়েছেন সুনীল বন্সল (Sunil Bansal)। কলকাতা সহ ব্যারাকপুর, খড়দহ, বসিরহাট, বারুইপুর এবং বিধাননগরের আসনগুলি তার রণনীতি অনুযায়ী চলবে। তিনি রাজ্য দপ্তরে বসবেন বলেও জানা গিয়েছে। সেখান থেকেই তিনি ১৩ হাজার বুথে দলের যাবতীয় কর্মকাণ্ড পরিচালনা করবেন। তবে, আপাতত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, সুনীল বনসল থাকতে চলেছেন উত্তরপ্রদেশে সরকারি অতিথিশালায়। বিজেপি রাজ্য দপ্তরে বর্তমানে তার নতুন ঘরের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। আলাদা ঘর, বিশ্রামঘর এবং সেগুলি কি রংয়ের কাজ বর্তমানে জোরকদমে শুরু করেছে বিজেপি রাজ্য নেতৃত্ব।

বিজেপির মুরলীধর সেন লেনের অফিস এখন আকারে কিছুটা ছোট দাঁড়াচ্ছে। এই কারণে, বেশি কিছু নির্বাচনী অফিস সরিয়ে হেস্টিংস এ নিয়ে যাওয়া হয়েছে। বর্তমানে মুকুল রায়ের ঠাঁই হয়েছে হেস্টিংসে। আর রাজ্য অফিসে তার ঘর বর্তমানে ফাঁকা। আর এই ঘর দেওয়া হয়েছে বর্তমানে শোভন এবং বৈশাখীকে।

বিগত ২০১৯ সালের ১৪ আগস্ট বিজেপিতে যোগদান করেন শোভন চট্টোপাধ্যায় এবং বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। তারপর থেকে শোভন এবং বিজেপির মধ্যে চলে যাচ্ছে মান অভিমান এবং তর্কবিতর্কের পালা। বেশ কয়েক মাস ধরে শোভন চট্টোপাধ্যায় কে বিজেপির কোন কর্মসূচিতেই দেখা যায়নি। একই সঙ্গে বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় ছিলেন অনুপস্থিত। তবে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের সঙ্গে নভেম্বর মাসের বৈঠকের পর এই মান-অভিমানের পালা কিছুটা হলেও মিটেছে। তারপরেই গত ২৭ ডিসেম্বর কলকাতা জোনের পর্যবেক্ষক হিসেবে আসীন হন শোভন চট্টোপাধ্যায় এবং সহ পর্যবেক্ষক হন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়।

Tags

Related Articles

Back to top button